বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০২:৩৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
রংপুর বিভাগের নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান- ভাইস চেয়ারম্যানের শপথগ্রহণ রংপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন প্রার্থী আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা মর্যাদার লড়াই জাতীয় পার্টির বিরামপুর পুলিশ বক্স ও বিট পুলিশিং কার্যালয়ের উদ্বোধন নদীর ভাঙন প্রতিরোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি রাস্তা পাকাকরণ কাজে ব্যাপক অনিয়ম  দেখার কেউ নেই “স্বাধীনতা সুবর্ণ জয়ন্তী পুরস্কার ২০২৩” পেল প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট রংপুরে যুবদল নেতা নয়নের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত রংপুর নগরীতে  বাড়িতে হামলা সরকারি জমি থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ  বিরামপুরে প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহে মা দিবস অনুষ্ঠিত

আশুগঞ্জ উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়িত ঘোষণা: বিদ্যুৎ সংযোগ পায়নি চর সোনারামপুরবাসী

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৪৭১ বার পঠিত

জেলা প্রতিনিধি, ব্রাহ্মনবাড়ীয়া ।-  খুঁটি বসানো হলেও ভূগর্ভস্থ তার না আসায় বিদ্যুৎ সংযোগ পায়নি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার চর সোনারামপুরের ছয় হাজারের বেশি অধিবাসী। কবে সাবমেরিন কেবলসহ অন্যান্য যন্ত্রপাতি আসবে বা চরবাসী কবে পাবে সংযোগ তাও সুনির্দিষ্ট ভাবে জানাতে পারেনি স্থানীয় বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ। এ অবস্থাতেই উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়িত ঘোষণা করা হয়েছে। স্থানীয় বিদ্যুৎ বিভাগের তথ্যমতে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ২৭ আগস্ট গণভবন থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসনের সঙ্গে এক ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এ ঘোষণা দেন। কিন্তু এ ঘোষণার পরও বিদ্যুৎ না পাওয়ায় হতাশ চরবাসী। এদিকে এ বিষয়ে তথ্য গোপনের অভিযোগের পাশাপাশি এ ঘটনাকে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করার কৌশল বলে মনে করছেন স্থানীয় জন প্রতিনিধিরা। কেউ কেউ বিষয়টিকে জনগণের সঙ্গে বিদ্যুৎ বিভাগের এক ধরনের প্রতারণা বলে ধারনা করছেন। তবে কেন এমনটি হলো এর খোঁজ খবর নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসন। আশুগঞ্জ সদর ইউনিয়নের তথ্য বাতায়ন সূত্রে জানা গেছে, মেঘনার চর সোনারাম পুরের বর্তমান জনসংখ্যা ছয় হাজার ৪২২। তাদের বেশিরভাগই অল্প আয়ের জেলে। চরের এক কিলোমিটারের মধ্যে নদীর তীর ঘেঁষে রয়েছে দেশের অন্যতম আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র। চরের মধ্যেই দাঁড়িয়ে রয়েছে আশুগঞ্জ-সিরাজগঞ্জ ২৩০ কেভি জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ সরবরাহের বিশাল টাওয়ার। হাতের কাছে বিদ্যুতের এসব আয়োজন থাকলেও নানা কারণে তারা বিদ্যুতের সুবিধা পায়নি। তবে বর্তমান সরকারের ‘শেখ হাসিনার উদ্যোগ, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ ’ কর্মসূচির আওতায় ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ নির্দেশনায় সাবমেরিন কেবলের মাধ্যমে চলতি মুজিব শতবর্ষে চরে বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্যোগ নেওয়া হয়। সে অনুযায়ী চরের চারপাশে বসানো হয় বিদ্যুতের খুঁটি, টানানো হয় তার। তবে এখনও গ্রাহক পর্যায়ে তার টানানো বা বিদ্যুতের সংযোগ দেওয়া হয়নি। জানা গেছে, কুমিল্লা জোনের আওতায় চরে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হচ্ছে। একটি অসমর্থিত সূত্র জানায়, টেন্ডার জটিলতায় নির্ধারিত সময়ে সাবমেরিন কেবল আসেনি। চরবাসী পংকজ চক্রবর্তী, শিপন চন্দ্র দাস, যোগেন্দ্র বর্মণসহ অনেকেউ জানিয়েছেন, দীর্ঘ অপেক্ষার পর প্রধানমন্ত্রীর উদ্যোগে তারা বিদ্যুৎ পেতে যাচ্ছিলেন। এখন যেহেতু বিদ্যুৎ সংযোগ না দিয়েই শতভাগ বিদ্যুতায়িত উপজেলা ঘোষণা করা হয়েছে, তাই প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর এ উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতায়িত উপজেলা হিসেবে গণ্য করবে। ফলে তাদের বিদ্যুৎ সংযোগের বিষয়টি এক সময় ‘ফাইলচাপা’ পড়ে যাবে। তাই কবে বিদ্যুৎ সংযোগ মিলবে বা আদৌ মিলবে কিনা তা নিয়ে তারা সন্দিহান। আশুগঞ্জ সদর ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য মো: ইব্রাহিম বলেন, এটি চরবাসীর সঙ্গে বিদ্যুৎ বিভাগের এক ধরনের প্রতারণা। আশুগঞ্জ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সালাহ উদ্দিন এ ব্যাপারে তথ্য গোপনের অভিযোগ এনে বলেন, একটি চক্র সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য এমনটি করেছে। আশুগঞ্জ বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সুলতান মাহমুদ বলেন, চরে বিদ্যুৎ সংযোগের যাবতীয় প্রক্রিয়া চলছে। তবে তা কবে হবে, তা তিনি সুনির্দিষ্টভাবে জানাতে পারেননি। এটি ওপর থেকে হয় বলে তিনি জানান। এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক হায়াত উদ দৌলা খানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি নিয়ে সংশ্নিষ্টদের সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানান।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com