মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১২:৩০ অপরাহ্ন

কংগ্রেস ও গণঅধিকার পার্টির নেতৃত্বে জাতীয় জোটের আত্মপ্রকাশ

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ২৪১ বার পঠিত

বজ্রকথা প্রতিনিধি।- নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ কংগ্রেসের নেতৃত্বে গণঅধিকার পার্টি (পিআরপি) সহ ছয়টি দলের সমন্বয়ে আরও একটি নির্বাচনী জোটের আত্মপ্রকাশ ঘটেছে।

‘জাতীয় জোট’ নামে ছয়টি রাজনৈতিক দলের সমন্বয়ে গঠিত এ জোট ৩০০ আসনে প্রার্থী দিয়ে আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।
শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের মোহাম্মদ আকরাম খাঁ হলে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ জোট ঘোষণা করা হয়।
বাংলাদেশ কংগ্রেসের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট কাজী রেজাউল হোসেনকে চেয়ারম্যান এবং একই দলের মহাসচিব অ্যাডভোকেট মো. ইয়ারুল ইসলামকে মুখপাত্র করা হয়েছে জাতীয় জোটের।
জোটভুক্ত অন্য পাঁচটি দল হচ্ছে, গণঅধিকার পার্টি (পিআরপি), বাংলাদেশ বেকার সমাজ, বাংলাদেশ পিপলস পার্টি, বাংলাদেশ গ্রিন পার্টি ও বাংলাদেশ সৎ-সংগ্রামী ভোটার পার্টি। তবে এর মধ্যে ৫টি দলই নিবন্ধনভুক্ত নয়।
দলগুলোর চেয়ারম্যান ও মহাসচিবরা যথাক্রমে জোটের কো-চেয়ারম্যান ও সমন্বয়কারী হিসেবে থাকছেন। জাতীয় ও স্থানীয় সরকার নির্বাচনে আগামীতে একত্রে অংশ নেওয়া ছাড়াও এ জোট দেশ ও জনগণের স্বার্থে এবং জাতীয় সংকট নিরসনে যৌথভাবে কর্মসূচি দেবে।
জোট ঘোষণাকালে অ্যাডভোকেট কাজী রেজাউল হোসেন বলেন, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকার পুরোপুরি ব্যর্থ। ভোজ্যতেল, চিনি, পেঁয়াজ, চিনি, আলু, ডিমসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের একের পর এক অসহনীয় মূল্য বৃদ্ধি ও সিন্ডিকেটের কারসাজিতে জনগণের দিশাহারা অবস্থা। বাজারের নিয়ন্ত্রণ চলে গেছে সরকারের অসাধু সিন্ডিকেটের কাছে। সরকারের কিছু ব্যক্তি এই সিন্ডিকেটের সঙ্গে জড়িত।
কাজী রেজাউল হোসেন বলেন, মন্ত্রী-এমপিদের অনেকেই ব্যবসায়ী-শিল্পপতি হওয়ার তারা সব সময় অসাধু ব্যবসায়ীদের সুবিধা দেখেন। ব্যবসায়ীরা নিজেদের স্বার্থে অধিক মুনাফার আশায় একটার পর একটা জিনিসের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে জিনিসপত্রের দাম অস্বাভাবিক হারে বৃদ্ধি করে চলেছে। এক্ষেত্রে সরকারের উপযুক্ত নজরদারি নেই।

অ্যাডভোকেট মো. ইয়ারুল ইসলামের সঞ্চালনায় জোট ঘোষণাকালে গণঅধিকার পার্টি-পিআরপি’র চেয়ারম্যান সরদার মো. আব্দুস সাত্তার, বাংলাদেশ বেকার সমাজের সভাপতি মো. হাসান, বাংলাদেশ পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান মো. মোস্তফা কামাল বাদল, বাংলাদেশ গ্রিন পার্টির চেয়ারম্যান ইঞ্জি. মনছুর আহমেদ ও বাংলাদেশ সৎ-সংগামী ভোটার পার্টির চেয়ারম্যান মো. মোবারক হোসেন বক্তব্য রাখেন।
এছাড়াও গণঅধিকার পার্টির মহাসচিব ড. শরীফ সাকি, বাংলাদেশ বেকার সমাজের সাধারণ সম্পাদক মো. রাহাত চৌধুরী, বাংলাদেশ পিপলস পার্টির মহাসচিব মো. আমিনুল ইসলাম সুমন, বাংলাদেশ গ্রিন পার্টির মহাসচিব মো. মোস্তাকিম হোসাইন ও বাংলাদেশ সৎ-সংগামী ভোটার পার্টির মহাসচিব মো. নিজাম উদ্দিন সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com