1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:২৯ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
রংপুরে জিয়াউর রহমানের ৮৬ তম জন্মবার্ষিকী পালন করেছে যুবদল পীরগঞ্জে মিটার দিতে পারছে না পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-১ পার্বতীপুরের ট্রেন পরিচালক ফেলে যাওয়া স্মার্ট টিভি ফিরিয়ে দিলেন যাত্রীকে খেরপট্টির স্বপ্ন ভঙ্গ করে সেমিতে উপশহর পুরাতন ৬  নবাবগঞ্জে সড়কে সড়কে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ট্রাক্টর নবাবগঞ্জে সরকারী বিধি-নিষেধ না‌ মেনে ১৫ হাজার শিক্ষার্থীদের টিকা প্রদান নবাবগঞ্জে করোনা টিকা নিতে যাওয়ার সময় দূর্ঘটনায় স্কুল ছাত্র নিহত বগুড়ার শেরপুরে আনন্দ টিভি’র প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানের মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষ্যে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত ঘোড়াঘাটে এশিয়ান টেলিভিশনের ৯ম বর্ষপূর্তি পালিত বিরামপুরে ব্লাড ব্যাংকের রক্ত প্রদান উপলক্ষে আলোচনা সভা

কটিয়াদীতে ডিম বিক্রি করে জীবন যুদ্ধে নেমেছে দুই নারী

  • আপডেট সময় : রবিবার, ১২ জুলাই, ২০২০
  • ১২৭ বার পঠিত

কিশোরগঞ্জ থেকে সুবল চন্দ্র দাস।- কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার শামসুন্নাহার (৫৫) ও জামেলা খাতুন (৪০) দুই সংগ্রামী নারী। দু’জনেরই স্বামীর কোন কর্মক্ষমতা নেই। সামান্য ভিটে বাড়ি ছাড়া কোন জমি নেই। পরিবারের লোকজনের মুখে দু’মুঠো খাবার তুলে দিতে মানুষের করুণার পাত্র না হয়ে বুকে সাহস নিয়ে নেমে পড়েন ব্যবসায়। কটিয়াদী উপজেলার মানিকখালী বাজারের আড়ৎ থেকে বাকিতে ডিম নিয়ে ট্রেনে প্রতিদিন চলে যান ভৈরবসহ বিভিন্ন বাজারে। সেখানে ডিম বিক্রি করে মহাজনের টাকা বুঝিয়ে দিয়ে লাভের টাকায় চাউল, ডাল নিয়ে বাড়ি ফিরেন। এভাবেই কোন রকমে চলছিল তাদের জীবন। কিন্তু এখন মহামারি করোনার প্রভাবে ট্রেন, বাস চলাচল ও হাট বাজার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় থেমে গেছে তাদের ব্যবসা। স্বামী ও সন্তানদের মুখে খাবার যোগানো নিয়ে তারা এখন চিন্তিত। সরকারি ভাবে কর্মহীন অতিদরিদ্র লোকজনকে সাহায্য প্রদান শুরু হলেও তারা কিছুই পায়নি। শামসুন্নাহার জানান, তার বাড়ি উপজেলার চান্দপুর ইউনিয়নের দেবলেরকান্দা গ্রামে। স্বামী বাদল মিয়া দীর্ঘ ৩০ বছর যাবৎ অসুস্থ। তিনি ৩ ছেলে ও ১ মেয়ের জননী। বড় ২ ছেলে বিয়ে করে পৃথক সংসার করছেন, মেয়েকেও বিয়ে দিয়েছেন। ছোট ছেলেটি প্রতিবন্ধী। অসুস্থ স্বামী ও প্রতিবন্ধী ছেলের চিকিৎসা ও সংসার চালাতে শামসুন্নাহার ২৫ বছর ধরে ডিম বিক্রি করেন। অপর ডিম বিক্রেতা জামেনা খাতুন জানান, তার বাড়িও একই ইউনিয়নের পাঁচপাড়া গ্রামে। তার স্বামী মো. সাহাব উদ্দিন একজন বুদ্ধি প্রতিবন্ধী। তিনি ২ ছেলে ও ১ কন্যা সন্তানের জননী। ২০ বছর ধরে তিনিও ডিম বিক্রি করেন। যানবাহন ও হাট বাজার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তারা এখন কোথাও যেতে পারছেন না। শত কষ্টের মাঝেও তারা কারোর কাছে হাত পাতেননি। শ্রম দিয়ে মাথার ঘামে শরীর ভিজিয়ে ব্যবসা করে সংসার চালাচ্ছেন এ দু’নারী। এখন কোথায় পাবেন তারা খাবারের টাকা ? এ নিয়ে এখন ভীষণ চিন্তিত সরকারি কোন সাহায্য সহযোগিতা গেলে তারা তাদের স্বামী সন্তানদের মুখে হাসি ফুটাতে পারবে এটাই প্রত্যাশা। ছবি-০২৭

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com