1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৬:২৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
সাংবাদিক সুমন মন্ডলের উপর হামলার ঘটনায় গ্রেফতার-২ নেতার বাড়ি থেকে মরদেহ উদ্ধার: চার দিনের রিমান্ডে মাসুদ রানা সাদুল্লাপুরে সিএনজি মোটর সাইকেল সংঘর্ষে যুবক নিহত পীরগঞ্জে অগ্নিকান্ডে বসত বাড়ি পুড়ে ছাঁই : গরু ছাগল পু‌ড়ে কয়লা দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে আউশ প্রণোদনার বীজ ও সার বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন পার্বতীপুরে একশ গ্রাম পুলিশ পেল বাইসাইকেল সাপাহার সদর ইউনিয়ন করোনা মুক্ত রাখতে বাড়ি বাড়ি মাস্ক বিতরণ ৭১ এর মত স্বাধীনতা বিরোধীরা বার বার পরাজিত হবে -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি একনজরে বিশ্ব করোনা পরিস্থিতি রমজানে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে রাখতে সহযোগিতা চেয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

কটিয়াদীতে রেকর্ড পরিমাণ ভূট্টা উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা

  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৩ বার পঠিত

কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ) থেকে সুবল চন্দ্র দাস।-  প্রতি বছর ইরি-বোরো ধান কাটা মৌসুমে স্থানীয় চাষিরা ধানের ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় এবং বাজারে প্রচুর চাহিদা ও ভালো দাম থাকায় চরাঞ্চলে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে ভুট্টা চাষ।রেকর্ড পরিমাণ ভূট্টা উৎপাদনের আশা করেছেন কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার পৌরসভার বøকের বেথৈর গ্রামের কৃষকরা। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে উপজেলার ৭০ হেক্টর জমিতে ভূট্টা চাষের লক্ষ্য মাত্রা নির্ধারণ করা হয়। অন্য ফসলের তুলনায় কম খরচে অধিক ফলন ও বেশী লাভ হওয়ার পাশাপাশি বাজারে ব্যাপক চাহিদা থাকায় ১ শত হেক্টর জমিতে ভূট্টা চাষ করেছেন এবং বাম্পার ফলনের আশা করছেন তারা। ভূট্টা অত্যন্ত লাভজনক একটি ফসল। গবাদি পশুর খাদ্য ও জ্বালানির চাহিদা মেটাতে অনেক কৃষক ভুট্টা চাষ করছেন। ফলে উপজেলার পতিত জমিগুলো ভুট্টা চাষের আওতায় আনা হচ্ছে। এই রবি মৌসুমে কৃষকরা অন্যান্য আবাদের চেয়ে ভুট্টা চাষে বেশি ঝুকছে এবং চরাঞ্চলের চেহারা পাল্টে যাচ্ছে। এখন অন্যান্য ফসল আবাদ বাদ দিয়ে কৃষকরা ভুট্টা চাষে উৎসাহী হচ্ছে উপজেলার পৌরসভার বেথৈর গ্রামের কৃষক আব্দুল হাসিম জানান,ভূট্টা চাষ করতে সার ও সেচ কম লাগে, ফলন অন্য ফসলের তুলনায় বেশী হয়।তাই ধান চাষ না করে ভুট্টা চাষ করছি। আমি এ বছর ৭০ শতাংশ জমিতে ভূট্টা চাষ করেছি। আশা করছি বেশ ভালো ফলন পাবো।এ গ্রামের আরেকজন প্রান্তিক কৃষক মল্লিক মিয়া বলেন,এক বিঘা জমিতে ভূট্টা চাষ করতে খরচ হয়েছে ৬-৭ হাজার টাকা এবং বিক্রি হবে ৩০-৪০ হাজার টাকা। এ ছাড়া আমরা ভূট্টার পাশপাশি খড়ের বদলে গরু-ছাগলের এক বছরের খোরাক পাব ও লাকড়িও পাব। যা জ্বালানি হিসাবে ব্যবহার করা যাবে।পৌরসভার ব্লকের উপ সহকারী মোঃ আবু ছিদ্দিক জানান, আমরা ভুট্টার আবাদ বাড়ানোর জন্য ব্যাপক কর্মসূচী নিয়েছি এবং সার,বীজসহ প্রয়োজনীয় পরামর্শ সবসময় দিয়েছি। আমাদের এলাকায় ব্যাপক ভুট্টার আবাদ হয়েছে ও আগামীতে দ্বিগুন ভুট্টার আবাদ বাড়বে। উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ মুকশেদুল হক জানান, উপজেলার জমিগুলো ভুট্টা চাষের উপযোগী। বানিজ্যিক কৃষির সম্প্রসারনের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। লাভজনক এই ভুট্টা চাষে কৃষকদের আগ্রহী করে তুলতে কৃষি অফিস থেকে সব রকম পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। আমরা ভুট্টার আবাদে সফল হয়েছি। আশা করছি, বর্তমান সময়ে যেভাবে ভুট্টার আবাদ হচ্ছে সেই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে এবং ভুট্টা চাষ আরো বৃদ্ধি পাবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com