মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ১০:১২ অপরাহ্ন

কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার অনিয়ম দুর্নীতির প্রমাণ পেয়েছে দুদক

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : শনিবার, ১০ অক্টোবর, ২০২০
  • ৮২ বার পঠিত

কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি।- কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রমাণ পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এর পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তানভীর হাসানসহ দু’জনকে বদলির সুপারিশ ও খাদ্য সরবরাহকারী ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স বাতিলের নির্দেশ দিয়ে কিশোরগঞ্জ সিভিল সার্জনকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা, খাদ্য সরবরাহকারী, সুপারভাইজার ও অন্যদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ পায় দুদক। এর ভিত্তিতে দুদকের ময়মনসিংহ সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক ফারুক আহমেদ ও উপসহকারী পরিচালক এনামুল হকের নেতৃত্বে চলতি বছরের ১৮ ফেব্রæয়ারি অভিযান চালায় দুদক এনফোর্সমেন্ট টিম। অভিযান শেষে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে গত ২২ মার্চ ঢাকায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপপরিচালক (এনফোর্সমেন্ট) বরাবর প্রতিবেদন দাখিল করা হয়। প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৯ সেপ্টেম্বর দুদক প্রধান কার্যালয়ের এনফোর্সমেন্ট ইউনিটের একটি চিঠিতে স্বাস্থ্য কর্মকর্তা তানভীর হাসান ও সিনিয়র স্টাফ নার্স জেবুন নেসা খানমকে বদলি এবং ঠিকাদার আজিজুল হক ভূঁইয়া রুবেলের ঠিকাদারি লাইসেন্স বাতিল সহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়। ২৯ অক্টোবরের মধ্যে এ বিষয়ে কমিশনকে জানাতে কিশোরগঞ্জ সিভিল সার্জন বরাবর পত্র প্রেরণ করে দুদক। প্রতিবেদনের বিবরণে জানা যায়, হাসপাতালে রোগীদের নামমাত্র ও নিম্নমানের খাবার দেওয়া, বদলি হওয়ার পরও আবাসিক কোয়ার্টারে চিকিৎসকদের অবস্থান করতে দেওয়াসহ হাসপাতাল ব্যবস্থাপনায় অনিয়ম ও নিজের কর্তৃত্ব বজায় রেখে নিজের দায়িত্ব-কর্তব্যে অবহেলা করেছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তা। কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তানভীর হাসান বলেন, এ ব্যাপারে আমি এখনও কিছুই জানি না। আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে, তা সঠিক নয়। এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যোগদানের পর থেকে আমি দায়িত্ব ও কর্তব্য যথাযথভাবে পালনে সচেষ্ট আছি। কেউ বিরাগ ভাজন হয়ে আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে। কিশোরগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান বলেন-দুদকের চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com