শনিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ১০:৫৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পলাশবাড়ী কৃষি কর্মকর্তা কে মাটির স্বাস্থ্য সুরক্ষায় পুরুস্কার লাভ গাইবান্ধা-৫ আসনে আচরণবিধি লঙ্খন করায়  কারন দর্শানোর নোটিশ বিরামপুর হানাদার মুক্ত দিবস পালিত   জাতীয় পার্টি গঙ্গাচড়া উপজেলা শাখার আহবায়ক কমিটি অনুমোদন পীরগঞ্জ মুক্ত দিবস পালন বিরামপুরে জুয়া খালার ৫ জুয়াড়ীকে আটক করেছে পুলিশ  নারী নির্যাতনের প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে গাইবান্ধায় মানববন্ধন পার্বতীপুরে গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরণের জন্য স্কুল ব্যাগ প্রদান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব খতিব উদ্দিন আহমেদ এর জানাযা নামাজ অনুষ্ঠিত দিনাজপুরের বীরগঞ্জে ৭ দিনব্যাপী গাভী পালন প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন

গাইবান্ধা শহরে ফোর লেন প্রকল্পভুক্ত সড়কে দোকানপাট ও অবকাঠামো অপসারণের কাজ শুরু

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০
  • ২০০ বার পঠিত

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা।- গাইবান্ধা জেলা শহরে যানজট নিরসন কল্পে ফোরলেন প্রকল্পের বাস্তবায়নের কাজ শুরু হয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে জেলা শহরের ১নং রেলগেট থেকে পূর্বদিকের ডিবি রোড, কাচারী বাজার, পুরাতন জেলখানা ও পুরাতন বাজার এলাকা পর্যন্ত প্রায় ১ কিলোমিটার সড়কের দু’পাশের দোকানপাটসহ সকল অবকাঠামো অপসারণের কাজ শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে রাস্তার দু’পাশের পুরাতন বড় বড় গাছপালা কেটে অপসারণ করা হয়েছে। সেইসঙ্গে বিদ্যুৎ ও টেলিফোনের খুঁটি স্থানান্তরের কাজও পর্যায়ক্রমে অপসারণ করা হবে বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, প্রকল্পের আওতায় প্রাথমিক পর্যায়ে পুলিশ সুপারের কার্যালয় সংলগ্ন গাইবান্ধা-পলাশবাড়ি সড়ক থেকে ডিবি রোড, পুরাতন জেলখানার মোড় হয়ে পুরাতন বাজারের পূর্বদিকের গেট পর্যন্ত ফোর লেন প্রকল্পটির বাস্তবায়নের কাজ সম্পন্ন হবে। এছাড়া এ প্রকল্পের আওতায় পূর্বদিকে বালাসীঘাট এবং পশ্চিমদিকে পলাশবাড়ি উপজেলা মোড় পর্যন্ত পুরাতন সড়কটি আরও সম্প্রসারিত হবে। এদিকে বাসটার্মিনালের পশ্চিম পাশ থেকে ডিভাইডারসহ ডিসি অফিস হয়ে পুলিশ সুপারের অফিস পর্যন্ত ফোরলেন প্রকল্পের কাজ ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে এবং পলাশবাড়ী উপজেলা পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণ করা হয়েছে।

জেলা সড়ক জনপদ বিভাগ সুত্রে জানা গেছে, গাইবান্ধা শহরের যানজট নিরসনে ১৫৭ কোটি টাকা ব্যয়ে এই ফোরলেন প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হচ্ছে। এতে শুধু নির্দিষ্ট এলাকার সড়ক ৬৬ ফুট প্রশস্থ করে ফোরলেন করা হবে। এছাড়া সড়কের উভয় পাশে পথচারী চলাচলের জন্য ফুটপাত, সড়কের মাঝে ডিভাইডার ও তাতে সুন্দর নান্দনিক ফুলের বাগান এবং কাচারী বাজার মসজিদ সংলগ্ন মোড়ে একটি গোল চত্বর ও দৃষ্টিনন্দন ফোয়ারাও গড়ে তোলা হবে। এই প্রকল্পের আওতায় জমি অধিগ্রহন এবং জমি সংলগ্ন অবকাঠামোর মূল্য পরিশোধ বাবদ ব্যয় হবে মোট ১১০ কোটি টাকা। ফলে জমি অধিগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে এবং অধিগ্রহণকৃত জমি ও জমি সংলগ্ন অবকাঠামোর মূল্য পরিশোধ করার কাজও অব্যাহত রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com