1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ০১:৩২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
বগুড়ার শিবগঞ্জে বাস্তবায়িত বিষমুক্ত নিরাপদ আম বাগান পরিদর্শন করেন ইউএনও  মুজিববর্ষে শেরপুরে আনছার ভিডিপি’র উদ্যোগে গাছের চারা বিতরণ ঠাকুরগাঁও ৭ দিনের লকডাউন পীরগঞ্জে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর তৎপরতা ফুলবাড়ীতে হিজড়া সম্প্রদায়ের যাচাই বাছায়ের জন্য ও অবৈধ্য হিজড়া সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলেই দেশের মানুষের কল্যাণ ও উন্নতি হয় -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি সাপাহারে ছাত্রাবাস থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার বীরগঞ্জে শর্ত অমান্য করে বালু উত্তোলন বগুড়ায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহতদের থেকে পাওয়া গেল ৫৯ বোতল ফেন্সিডিল অভিযোগ পীরগঞ্জের এক হুজুর আর এক হুজুরের টাকা কেড়ে নিয়েছে অন্যের আর্টিকেল নিজের নামে চালিয়ে গুগল রেডলিস্টে বেরোবি শিক্ষক সমালোচনার ঝড়

তারা আমাদের ভবিষ্যৎ

  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৯ জুলাই, ২০২০
  • ৪৬ বার পঠিত

– এসএ মন্ডল
যুব সমাজ একটি দেশ বা জাতির সম্পদ। তাদের উপর জাতির ভবিষ্যৎ নির্ভর করে। তাই আমরাও আমাদের সম্ভবনাময় যুব সমাজকে নিয়ে স্বপ্ন দেখছি, বিশ্বাস করি ভবিষ্যতে এই যুব সমাজ আমাদের দেশকে রক্ষা করবে।বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব্যকে আগলে রাখবে এরাই।কিন্তু স্বপ্ন আর আশা করলেই তো হবে না। যুব সমাজ ফলদায়ক বৃক্ষের চারার মত। গাছ গেড়ে যেমন চারার যতœ না নিলে, ঘেরা বেড়া না দিলে গোরু ছাগলে খায়। দুষ্টপ্রকৃতির লোকজন, শত্রæতা করে অন্ধকারে চারার মাথা ভেঙ্গে ফেলে,তেমনি যুব সমাজ সম্পদ ঠিকই; কিন্তু সঠিক ভাবে তাদের যতœ না নিলে, নিয়ন্ত্রণ না করলে, শিক্ষা দীক্ষা না দিলে তারা অন্যের দ্বারা প্রভাবিত হতে পারে বিভ্রান্ত হতে পারে,ভুল পথে পরিচালিত হতে পারে ।এ কথাটা বলছি, এই করোনা কালে বর্তমানে বাংলাদেশ কঠিন সময় পার করছে। আবার স্বপ্নও দেখছে, জাতিকেও স্বপ্ন দেখাচ্ছে। স্বপ্নও হাতছানি দিচ্ছে।তাই আবেগ তাড়িত হবার সুযোগ নেই। আর রাতারাতি স্বপ্ন বাস্ত বাস্তবায়ন করাও সম্ভব নয়। কারণ যে নিশান দৌড় চলছে, আমরা তো এই নিশান আমাদের প্রজন্মের হাতেই তুলে দিতে চাই।যদি এই কথাটা মানি তা হলে,দেশের ভবিষ্যৎ মানুষদের বিশেষ করে যুব সমাজকে নিয়ে ভাবতে হবে।পরিকল্পনা করতে হবে।বাংলাদেশ একটি অধীক জন্মহারের দেশ, জনবহুল দেশ। সে কারনেই সম্ভবনার দেশও এই বাংলাদেশ। তবে জন্মহার অনিয়ন্ত্রিত হোক সেটা আমরা বলছি না। আমরা মনে করি সে দিন খুব বেশী দুরে নয় , আমরা অবশ্যই দেখবো বাংলাদেশের যুবকরা যাদের বয়স আঠারোর নিচে নয় পয়ত্রিশের উপর নয় তারা বিশ্বের প্রয়োজনেই ছড়িয়ে পড়বে সারা পৃথিবীতে।বসতি গড়বে দেশে দেশে নেতৃত্ব দেবে সারা দুনিয়ায়। সারা দুনিয়ার শ্রমবাজার চলে আসবে বাংলাদেশের হাতে। কিন্তু এই সম্ভবনাকে এগিয়ে নিতে চাইলে অনেকটা কাঠ খড় পোড়াতে হবে। সমজকে এগিয়ে আসতে হবে, সরকারকে পদক্ষেপ নিতে হবে।আমরা একটা বিষয় লক্ষ্যকরছি,সম্ভবনাময় যুব সমায় যাদেরকে নিয়ে স্বপ্ন নাচানাচি করছে,কেন যেন তারা বেপরোয় হয়ে উঠছে। তাদের গতিবিধ ভালো ঠেকছে না।তারা সিনিয়র বা মুরুব্বীদের মানছে না, সন্মান করছে না। তাদের পোষাক, তাদের চাল চলন,গতি বিধি সুবিধের ঠেকছে না। আইন মানার ক্ষেত্রে অনিহা দেখছি। তারা ঘুমায় না, সারা রাত জেগে থাকে। বই পড়ার চাইতে মোবাইল ফোনে এদিকে সেদিক ঘুরে বেড়ায়। কেউ কেউ অনেক রাত পর্যন্ত বাড়ির বাইরে থাকে। অভিভাবকদের কথা শুনতে চায় না, উপদেশ মানে না। আরো কিছু আপত্তিকর বিষয় আছে!আশংকা করছি এ ভাবে চলতে থাকলে আমাদের পরিবারগুলোর ভবিষ্যৎ উজ্জল হওয়ার পরিবর্তে অন্ধকারে ছেয়ে যাবে। মানুষের জীবনে স্বপ্ন থাকা দরকার। কিন্তু স্বপ্ন তো কেউ এমনি এমনি দেখে না। হারিকেন থাকলেই যেমন জ্বলে না, তার কল ঠিক করতে হয়, ফিতা তুলতে হয়, তেল ঢালতে হয়, চিমনী পরিস্কার করতে হয় তেমনি আমাদের সন্তানদের চেতনাকে জাগ্রত করতে, উজ্জীবিত করতে তাদেরকে সময় দিতে হবে,সংঘ করতে হবে। কিন্তু তা করা হচ্ছে না বলে গ্রাম দেশের অনেক ছেলেরা বিপদগামী হচ্ছে। পিতা মাতা তাদের সামলাতে পারছে না। এমনটা চলতে থাকলে নিকট ভবিষ্যতে পস্তাতে হবে! যুবকদের স্বভাব চালচলনে উগ্রতার ছাপ দেখা যাচ্ছে। সৃষ্টিশীল কাজ, সৃজনশীল কাজ ছেড়ে, এক বাইকে তিন জন করে চেপে মটর সাইকেলের বহর নিয়ে দ্রæত গতিতে তারা কোথায় ঘুরে বেড়ায় ? এটা সমাজের জন্য ভালো লক্ষণ নয়। এটা সবার নজড়ে পরলেও এ নিয়ে কারো কোন মাথা ব্যাথা আছে বলে মনে হচ্ছে না। ভয়টা কিন্তু সেখানেই ! আরো দেখছি, ছেলেরা বোতল জাত কোমল পানীয় পান করলে তাদের কিছু বলছি না, কিন্তু এই বোতলের কোমল পানি আগামী দিনে কাল কড়া হয়ে দেখা দেবে। পিতা ধূমপান করেন।ছেলেও করে। ছেলে আবার একটু বেশীই করে; সে গাঁজায় দম দেয়। দুঃখের বিষয় মাদক এখন হাতের নাগালে। যুব সমাজ ট্যাবলেট খায়, ইয়াবা খায়, ফেনসিডির খায়। এগুলো সহজে পাওয়া যায় বলেই তো তারা খায় ! কিন্তু প্রশ্ন এতো কড়া কড়ির মধ্যে অন্যদেশ থেকে এ সব মাদক আসে কি করে? আমাদের ছেলেদের একটা বড় অংশ বিকৃত যৌতার দিকে ঝুকছে। এ সব নিয়ে ভাবতে হবে।তাদেরকে শোধরাতে হবে।আমরা যদি সত্যি দেশকে ভালো বাসি, নিজেদের ভালো চাই, দেশকে এগিয়ে নিতে চাই, জাতির ভবিষ্যৎ আমাদের সন্তানদের মঙ্গল চাই, বিশ্বে নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করতে চাই, বাংলাদেশেকে উন্নত দেশ করতে চাই, তা হলে যুব সমাজকে, তাদের হাতকে কর্মীর হাতে পরিণত করতে হবে, তাদেরকে দক্ষ, স্বপ্নবাজ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। সে ক্ষেত্রে রাষ্ট্রকেই দায়িত্ব নিতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com