বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০২:৩৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
রংপুর বিভাগের নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান- ভাইস চেয়ারম্যানের শপথগ্রহণ রংপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন প্রার্থী আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা মর্যাদার লড়াই জাতীয় পার্টির বিরামপুর পুলিশ বক্স ও বিট পুলিশিং কার্যালয়ের উদ্বোধন নদীর ভাঙন প্রতিরোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি রাস্তা পাকাকরণ কাজে ব্যাপক অনিয়ম  দেখার কেউ নেই “স্বাধীনতা সুবর্ণ জয়ন্তী পুরস্কার ২০২৩” পেল প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট রংপুরে যুবদল নেতা নয়নের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত রংপুর নগরীতে  বাড়িতে হামলা সরকারি জমি থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ  বিরামপুরে প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহে মা দিবস অনুষ্ঠিত

দেবোত্তর সম্পত্তি দখলদারদের কোন ছাড় দেয়া হবে না -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩২৭ বার পঠিত

ফজিবর রহমান বাবু ।- দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও হিন্দু ধর্মীয় কল্যান ট্রাস্টে সিনিয়র সহ-সভাপতি মনোরঞ্জন শীল গোপাল বলেছেন, হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্ট ইতিমধ্যে জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় দেশের সংখ্যালঘুদের সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, উপাসনালয় সংস্কার কল্পে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। সকল শ্মশান কমিটি, মন্দির কমিটিকে একটি বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে যে ভূমিদস্যু তারা বিভিন্নভাবে অপচেষ্টায় লিপ্ত আছে। তাই সরকারের পাশাপাশি সকলকে শক্ত অবস্থান গ্রহণ করতে হবে। পাশাপাশি যারা দেবোত্তর সম্পত্তি গুলো দখল করে আছে তাদেরও ছাড় দেয়া হবে না। দেবোত্তর সম্পদ রক্ষার্থে সর্বাত্মক চেষ্টা অবশ্যই কমিটির পক্ষ থেকে থাকতে হবে।
১৪ অক্টোবর ২০২০ বুধবার দিনাজপুর শহরের বালুবাড়ীস্থ মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের হলরুমে হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট এর আয়োজনে শারদীয় দূর্গোৎসব উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত অনুদানের চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধাান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
এসময় সদর উপজেলার হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট অর্ন্তভূক্ত মন্দির ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের ২৪ জন শিক্ষক-শিক্ষিকাকে পুজার উপহার স্বরুপ শাড়ী ও পাঞ্জাবী এবং ৯ জন দুঃস্থ ব্যক্তির মাঝে প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত অনুদান ৩ হাজার টাকা করে ২৭ হাজার টাকা, ১১ টি প্রতিষ্ঠানে ২০ হাজার টাকা করে, সদর উপজেলায় ৪৫ টি মন্দিরে ১ লাখ ৭ হাজার টাকার চেক বিতরণ করেন এমপি গোপাল।
তিনি বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ঐতিহ্যের দেশ বাংলাদেশে ধর্ম যার যার কিন্তু উৎসব সবার। আমরা সকল ধর্মের মানুষ মুসলমান হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান একসাথে ভাই-ভাই হিসেবে বসবাস করছি। আমাদের দেশে হিন্দু বৌদ্ধ মুসলমান খ্রিষ্টান কোনো ভেদাভেদ নেই। এটি সমগ্র বাংলাদেশের চিত্র। ‘এখানে কখনো কোনো ভেদাভেদ ছিল না, ভবিষ্যতেও থাকবে না, কেউ চেষ্টা করলেও সেটা নষ্ট করতে পারবে না।’
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ জেলা শাখার সভাপতি সুনীল চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ জেলা শাখার আহবায়ক মো. কামাল হোসেন, বীরগঞ্জ উপজেলা আওয়াামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম ফিরোজ আলম, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় দিনাজপুর জেলা শাখার সহকারি পরিচালক মো. মশিউর রহমান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com