রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:০৪ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
রংপুরে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত ঘোড়াঘাটে চাচা-ভাতিজা হত্যা মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার নিরাপত্তা চেয়ে সদ্য বদলি  হওয়া পরিচালকের আবেদন স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে ফুটবলার নাজমুল এর পীরগঞ্জে বাশিস এর নব-নির্বাচিত কমিটির শপথ গ্রহণ স্মার্ট পুলিশিং কার্যক্রম শিঘ্রই চালু করা হবে -রংপুরে অতিরিক্ত আইজি ঘোড়াঘাটে সড়ক দূর্ঘটনায় একই পরিবারের ২ জন নিহত আহত ৩ জন দেশ বিরোধী কর্মকান্ডকে রুখতে রংপুরে আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ দিনাজপুরে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার উপহার শীতবস্ত্র শনিবারে জেলা আঃলীগের নব-নির্বাচিত কমিটির সংবর্ধনা

নৌবাহিনীর তিন জাহাজের কমিশনিং এ প্রধানমন্ত্রী

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ৬ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৭৫ বার পঠিত

বজ্রকথা ডেক্স।- গত ৫ অক্টোবর গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে নৌবাহিনীর জাহাজ ‘বানৌজা ওমর ফারুক’, ‘আবু উবাইদাহ’, ‘প্রত্যাশা’, ‘দর্শক’ ও ‘তল্লাশি’র কমিশনিং প্রদানকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা সব সময় চেয়েছি আমাদের এ সমুদ্রসীমা শুধু রক্ষা করা নয়, সমুদ্রের সম্পদটাও যেন আমাদের অর্থনৈতিক উন্নয়নের কাজে লাগে। তিনি বলেছেন, এ ক্ষেত্রে আমরা ব্লু ইকোনমির ধারণা নিয়েছি এবং তার ওপর কাজ করে যাচ্ছি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, সরকার সমুদ্রসীমা রক্ষার পাশাপাশি সমুদ্রসম্পদ আহরণের মাধ্যমে দেশকে সমৃদ্ধ করার উদ্যোগ নিয়েছে। সমুদ্রসীমা ও সম্পদ রক্ষায় নৌবাহিনীর প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাদের নৌবাহিনীর সদস্যরা লোকচক্ষুর আড়ালে থেকে প্রতিনিয়ত প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা থেকে শুরু করে সমুদ্র এলাকার নিরাপত্তাবিধান করে যাচ্ছেন, এটা প্রশংসার দাবি রাখে।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে শক্তিশালী আধুনিক সশস্ত্র বাহিনী গড়ে তুলতে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে বলেন, আমরা যুদ্ধ চাই না। কিন্তু যদি বাংলাদেশ কখনো বহিঃশত্রæর আক্রমণ দ্বারা আক্রান্ত হয় তা মোকাবিলা করবার মতো সক্ষমতা আমরা অর্জন করতে চাই। তাই আমরা সমুদ্রসীমা রক্ষার জন্য নৌবাহিনীকে শক্তিশালী করে গড়ে তুলছি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, নৌবাহিনীকে আধুনিক, দক্ষ, শক্তিশালী বাহিনী হিসেবে গড়ে তুলতে বিভিন্ন অবকাঠামোগত উন্নয়ন, যুদ্ধজাহাজ সংগ্রহ এবং বিদ্যমান জাহাজসমূহের অপারেশনাল সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য আমরা বাস্তবমুখী পরিকল্পনা নিই। আমরা নৌবাহিনীতে বর্তমান প্রজন্মের উন্নত সাবমেরিন, যুদ্ধজাহাজ, মেরিটাইম প্যাট্রল এয়ারক্র্যাফট, হেলিকপ্টারসহ আধুনিক সরঞ্জাম সংযোজন করেছি। এর মাধ্যমে একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় আমরা একটি ত্রিমাত্রিক নৌবাহিনী গঠনের প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছি। তিনি বলেন, আজ যে জাহাজগুলো কমিশনিং হলো সেগুলো আমাদের নৌবাহিনীকে আরও শক্তিশালী করবে। আজ আমরা পাঁচটি অত্যাধুনিক যুদ্ধজাহাজ নৌবাহিনীতে সংযোজন করতে সক্ষম হলাম। আপনারা জানেন, গণচীনের তৈরি আধুনিক সমরাস্ত্র সজ্জিত দুটি ফ্রিগেড ও একটি অত্যাধুনিক করভেট এবং আমাদের নিজস্ব খুলনা শিপইয়ার্ডে তৈরি দুটি আধুনিক জরিপ জাহাজ বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় নৌবাহিনীর ক্ষমতাকে আরও জোরদার করবে। নিজ দেশে জাহাজ নির্মাণ সক্ষমতার প্রশংসা করে শেখ হাসিনা বলেন, নিজস্ব ইয়ার্ডে জাহাজ তৈরির সক্ষমতা আমাদের আত্মবিশ্বাসকে বলীয়ান করে। আমরা হয়তো ভবিষ্যতে অন্য দেশের জন্যও জাহাজ তৈরি করতে পারব। সে সক্ষমতা আমরা অর্জন করব।

প্রধানমন্ত্রী সবাইকে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে বলেন, শীতকাল আসছে। আবার করোনাভাইরাস বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ছে। ইউরোপে ইতিমধ্যে অনেক জায়গায় লকডাউন হয়েছে। আমাদের দেশের মানুষকে আমরা সুরক্ষিত রাখতে চাই। কাজেই এখন থেকেই সচেতন থাকতে হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com