শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ০৫:১৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
চিলমারী কল্যাণ সমিতির কমিটি গঠন পীরগঞ্জে পাটচাষীদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত   দিনাজপুর শিশু একাডেমীর চিত্রাংকনসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে নেসকো গ্রাহকদের নিয়েপিএলসির নেসকোর  গণশুনানী ফুলবাড়ী শিবনগর ইউনিয়নে বয়স্ক ও বিধবা ভাতার কার্ড এর লটারি অনুষ্ঠিত  পলাশবাড়ীতে দুই বাইকের সংঘর্ষে আহত স্বদেশ এর মৃত্যু এসএসসি পরীক্ষায় মোবাইলে  প্রশ্নপত্র ফাঁস এক শিক্ষকের কারাদন্ড রংপুরে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের ৩৬ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন “শেকড় ” এর সহয়োগীতায় বর্ণমালায় রোদ্দুর কবিতা পাঠের আসর বাংলাদেশ প্রেসক্লাব পীরগঞ্জ শাখার সম্মেলন ও কমিটি গঠন

পীরগঞ্জে ভ্রাম্যমান আদালত কর্তৃক জব্দকৃত ড্রেজার মেশিন উধাও

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৬ আগস্ট, ২০২০
  • ২১৪ বার পঠিত
পীরগঞ্জ, রংপুর প্রতিনিধি।- রংপুরের পীরগঞ্জে ভ্রম্যামান আদালত কর্তৃক জব্দকৃত অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করার ড্রেজার মেশিন জব্দ করলেও রহস্যজনক কারণে তা উধাও হয়েছে। গত ২২ আগস্ট শনিবার রাতে উপজেলার চতরা ইউনিয়নে এ ঘটনাটি ঘটেছে।
এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শীরা  জানায়,  করতোয়া নদীর পার্শ্ববর্তী টোংরাদহ গ্রামে  ড্রেজার মেশিন বসিয়ে চতরা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মৃত ছাইফুল ইসলামের পুত্র সাগর মিয়া সংঘবব্ধ  হয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে আসছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেজবাউল হোসেনের নির্দেশে  উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) এর পরিচালনায়  ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালায়।  ভ্রাম্যমান আদালতের উপস্থিতি টের পেয়ে অবৈধ ভাবে উত্তোলনকারী বালু দস্যুর মুলহোতা নখারপাড়া গ্রামের উমর আলী মাষ্টারের পুত্র মামুন (৩০) ও বদনাপাড়া গ্রামের মৃত তারা মিয়ার পুত্র আরিফিন নাজমুল (২৬) -রা কৌশলে সটকে পড়ে। এ সময় ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বালু উত্তোলন কাজে ব্যবহৃত ১টি ড্রেজার মেশিন ও পাইপ জব্দ পূর্বক অত্র ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের জিম্মায় দিয়ে তা থানায় জমাদানের নির্দেশ প্রদান করে।
কিন্তুু অজ্ঞাত কারণে ঘটনার পরের দিন ২৩ আগস্ট রবিবার উক্ত ইউপি চেয়ারম্যান জব্দকৃত ড্রেজার মেশিনটি ও পাইপ  পীরগঞ্জ থানায় জমা না করে জব্দকৃত মালামাল হারিয়ে যাওয়ার একটি সাধারণ ডায়েরি করে।
এ ঘটনায় এলাকাবাসী আরো জানায়, মেশিনটি নদীতে ভাসমান থাকায় রাতের আধারে মামুন মিয়া লোকজনসহ মেশিনটি নিয়ে যায় ।
অত্র ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক শাহীন এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, মেশিনটি সন্ধ্যায় আমার জিম্মায় দিয়ে গেলেও তা নদী থেকে রাতে উদ্ধার করে ইউপি পরিষদে আনতে পারিনি। পরদিন সকালে লোক মারফত জানতে পারি সেটি কেবা কাহারা চুরি করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় থানায় আমি একটি সাধারন ডায়েরি করেছি।
এ ব্যাপারে উপজেলা সহকারি (ভূমি)  আবতাবুজ্জামান আল ইমরান  জানান,  “ আমি ভ্রাম্যমান আদালতে জব্দকৃত মেশিনটি অত্র ইউপি চেয়ারম্যানের জিম্মায় দিয়েছি। এখন বিষয়টি তদন্ত করে প্রশাসন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবে।’’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com