রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ঈদের দিনে পীরগঞ্জে হাউজি জুয়া ! পরিবারের বিরুদ্ধে যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পীরগঞ্জে নারী শিক্ষার বাতিঘর কসিমন নেছা বালিকা বিদ্যালয়ের ষাট বছর পূর্তি অনুষ্ঠান কাল গীতিকবি আব্দুর রহিম আর নেই এফসাকল এর শোক প্রকাশ পীরগঞ্জে আনসার  ভিডিপির প্লাটুন তালিকা  হালনাগাদ  করণ শুরু পীরগঞ্জে ম‌রণোত্তর বীমা দাবীর চেক প্রদান দিনাজপুর আইডিইবি মহিলা ও পরিবার কল্যাণ পরিষদের ইফতার দিনাজপুর জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যকরী পরিষদের পরিচিতি সভা পার্বতীপুরে উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত মিঠাপুকুরে ভারপ্রাপ্ত মাদ্রাসা সুপারের বিরুদ্ধে অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ

রংপুরে চার মাসে করোনা শনাক্ত ১৮৬১: মৃত্যু ৩২

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০
  • ২২৫ বার পঠিত

রংপুর প্রতিবেদক।- দিন দিন দেশে করোনা পরিস্থিতি শিথিল হয়ে আসাতে রংপুর অঞ্চলে নেই আগের মতো স্বাস্থ্য সচেতনতা। বেশির ভাগ মানুষই এখন করোনার ব্যাপারে উদাসীন। গ্রামে-শহরে মানুষের মধ্যে কমতে শুরু হয়েছে করোনা ভীতি। এতে করে সংক্রমণ ঝুঁকি বেড়েই চলেছে। করোনা রোগী শনাক্তকরণে পরীক্ষা কম হলেও বাড়ছে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা।
চলতি মাসের ১ হতে ৮ আগস্ট পর্যন্ত রংপুর জেলায় ১৬১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। একই সময়ে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও একজন। এদিকে গেল আটদিনে রংপুর মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে ৪২৯ জনের নমুনায় করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে।
বর্তমানে রংপুর জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ৮৬১ জনে দাঁড়িয়েছে। সুস্থ্য হয়েছেন ১ হাজার ৫২০ জন ও মারা গেছেন ৩২ জন।
রংপুর জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সূত্র জানা গেছে, গত চার মাসে রংপুর মহানগরসহ আট উপজেলায় করোনা সংক্রমিত রোগী শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৮৬১ জনে। এদের মধ্যে হাসপাতাল ও বাড়িতে থেকে সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৫২০ জন। এই ভাইরাসে জেলায় ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে।
সূত্র আও জানায়, গতকাল শনিবার (৮ আগস্ট) জেলায় ১৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর আগের দিন শনাক্ত হয়েছে আরও ২৬ জন। এছাড়াও ১ হতে ৬ আগস্ট পর্যন্ত যথাক্রমে ৮, ১৬, ৯, ৩২, ২৭ ও ২৬ জন করোনা পজিটিভ রোগী শনাক্ত হয়। গেল আট দিনে গড়ে প্রতিদিন ২০ জন করে আক্রান্ত হয়েছেন।
জেলা সিভিল সার্জন ডা. হিরম্ব কুমার রায় জানান, রংপুর জেলায় প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছিল এপ্রিলের ৮ তারিখে। এরপর থেকে গত চার মাসে তা এক হাজার আটশ ছাড়িয়েছে। এরমধ্যে সুস্থ ১ হাজার ৫২০ জন। মৃত্যু হয়েছে ৩২ জনের।
রংপুরসহ বিভাগের অন্যান্য জেলার করোনায় আক্রান্ত সংকটাপন্ন রোগীদের রংপুর ডেডিকেটেড করোনা আইসোলেশন হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বলেও জানান সিভিল সার্জন।
এদিকে বাংলাদেশ বিষয়ক বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সিচুয়েশন রিপোর্ট-২৩ অনুযায়ী দেশে করোনা ‘আক্রান্তের হার’ সবচেয়ে কম রংপুর বিভাগে। রোগতত্ত¡, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) থেকে পাওয়া বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্যানুযায়ী রংপুর বিভাগে প্রতি ১০ লাখ মানুষের মধ্যে ৩৪৭ দশমিক তিন জন আক্রান্ত।
এই বিভাগের মধ্যে সবচেয়ে বেশি করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে রংপুর জেলায়। এরপর রয়েছে দিনাজপুর, নীলফামারী, পঞ্চগড়, লালমনিরহাট, ঠাকুরগাঁও, গাইবান্ধা এবং সবচেয়ে কম কুড়িগ্রামে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com