বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ০১:৩৪ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
কোটা বিরোধী আন্দোলনে নিহত শিক্ষার্থী সাঈদের বাড়ীতে শোকের মাতম নেটওয়ার্কের সক্ষমতা বাড়াতে এআই যুক্ত করার ঘোষণা হুয়াওয়ের রংপুরে কোটা বিরোধী আন্দোলন এক শিক্ষার্থী নিহত তৃণমূল পর্যায়ে চিকিৎসার মান উন্নত করলে বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক রোগী শুন্য হবে-স্বাস্থ্যমন্ত্রী   পার্বতীপুর প্রেসক্লাবের উদ্যোগে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইসচেয়ারম্যানদের সংবর্ধনা বন্যার পানিতে সাঁতরে বন্যার্তদের ত্রাণ সংগ্রহ পার্বতীপুর পৌরসভায় মৌসুমি ফল উৎসব বড় পুকুরিয়া কয়লা খনির কারণে ক্ষতিগ্রস্তদের মানববন্ধন পার্বতীপুর পৌরসভায়  ড্রেন নির্মান কাজের উদ্বোধন দিনাজপুর-বিরামপুর -ঘোড়াঘাট সড়কে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটছে

রংপুরে বাড়ির সামনে মাদক বিক্রিতে বাঁধা যুবক আহত

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : সোমবার, ৩১ মে, ২০২১
  • ১৫৫ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক।- রংপুর নগরীর ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের ভগিবালাপাড়ায় বাড়ির গেটের সামনে মাদক বিক্রি ও সেবনে বাঁধা দেয়ায় হোসেন আলী নামের এক যুবককে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে স্থানীয় একদল দুবৃত্ত। বর্তমানে ওই যুবক গুরুতর আহত অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এঘটনায় তার মা হাসিনা বেগম বাদি হয়ে রংপুর মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। এদিকে অভিযোগ দায়েরের পর থেকে ভুক্তভোগীর পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। তারা এব্যাপারে মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারসহ সরকারের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। স্থানীয় গ্রামবাসী ও অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, রংপুর নগরীর ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের ভগিবালাপাড়ায় মৃত মনছুর আলীর বাড়ির গেটের সামনে প্রতিনিয়তই মাদক সেবন ও বিক্রি করতো স্থানীয় লুৎফর মিয়ার ছেলে শাহিন মিয়া, স্বাধীন মিয়া ও নিশান, অলিয়ারের ছেলে নাজমুল ও লাভলুৃ, হবি মিয়ার ছেলে শাকিল, মিটু ও এরশাদসহ একদল দুবৃত্ত। তারা স্থানীয় ভাবে সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ, মাদক সেবী ও বিক্রেতা বলে পরিচিত। তারা প্রতিনিয়ই ভগিবালাপাড়া গ্রামসহ নগরীর বিভিন্ন স্থানে মাদক বিক্রি করেন।শুক্রবার ২৮ মে রাতে ওই গ্রামের মৃত মনছুর আলীর বাড়ির গেটের সামনে তারা দলবদ্ধ হয়ে মাদক সেবন করে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করাসহ চেচামেচি করতে থাকে। এনিয়ে মনছুরের ছেলে হোসেন আলী তাদের বাড়ির গেট থেকে চলে যাওয়ার অনুরোধ করেন। এনিয়ে হোসেন আলীকে তারা পড়ে দেখে নেয়ার হুমকি দিয়ে চলে যায়। পরের দিন শনিবার দুপুরে শাহিনের নেতৃত্বে ১০/১৫জন হোসেন আলীর বাড়ির সামনে জড়ো হয়। এসময় তারা হোসেন আলীকে এক পেয়ে মারধোর করে। পরে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে দৃবৃত্তের দল চলে যায়। পরে পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে তিনি গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এঘটনায় রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতয়ালী থানার ওসি আব্দুর রশিদ জানান, অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com