শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৩:১৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
চিলমারী কল্যাণ সমিতির কমিটি গঠন পীরগঞ্জে পাটচাষীদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত   দিনাজপুর শিশু একাডেমীর চিত্রাংকনসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে নেসকো গ্রাহকদের নিয়েপিএলসির নেসকোর  গণশুনানী ফুলবাড়ী শিবনগর ইউনিয়নে বয়স্ক ও বিধবা ভাতার কার্ড এর লটারি অনুষ্ঠিত  পলাশবাড়ীতে দুই বাইকের সংঘর্ষে আহত স্বদেশ এর মৃত্যু এসএসসি পরীক্ষায় মোবাইলে  প্রশ্নপত্র ফাঁস এক শিক্ষকের কারাদন্ড রংপুরে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের ৩৬ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন “শেকড় ” এর সহয়োগীতায় বর্ণমালায় রোদ্দুর কবিতা পাঠের আসর বাংলাদেশ প্রেসক্লাব পীরগঞ্জ শাখার সম্মেলন ও কমিটি গঠন

সাপাহারে বন্যার পূর্বাভাস

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৪ জুলাই, ২০২০
  • ৪৩৫ বার পঠিত

সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি।- উজানে ভারতের বিভিন্ন নদ নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নওগাঁর জেলার সাপাহার উপজেলার সীমান্তবর্তি ইউনিয়ন গুলোর কয়েকটি গ্রামে বন্যার পূর্বাভাস দেখা দিয়েছে। গত কয়েক মাস ধরে একটানা বৃষ্টির ফলে উজানে ভারতের নদীগুলি হতে প্রবল বেগে স্রোতের পানি ভাটির দিকে নেমে আসায় হঠাৎকরে সাপাহার উপজেলার পাতাড়ী, শিরন্টি ও গোয়ালা ইউনিয়নের বেশ কিছু এলাকায় বন্যার পনি উঠতে শুরু করেছে। ইতোমধ্যেই ওই সব এলাকার অনেক ফসলের মাঠ পানির নিচে তলিয়ে গেছে। কোথাও কোথাও বসতবাড়ীর আঙ্গিনায় পানি উঠতে দেখা গেছে। উপজেলার পুর্ণভবা নদীর পানি উপচে উত্তর পাতাড়ী, জালসুখা, কাউয়াভাসা, কলমুডাঙ্গা, হাপানিয়া সহ বেশ কিছু এলাকার গ্রামে বন্যার পানি প্রবেশ করেছে। বৃষ্টির পানি বৃদ্ধি হতে থাকলে ভবিষ্যতে ওই এলাকায় বন্যাপরিস্থিতির অবনতি হতে পারে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। বন্যাপরিস্থিতির সংবাদ জানতে পাতাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান মুকুল মিয়ার সাথে কথা হলে তিনি জানান যে, বর্তমানে এলাকায় বন্যার ভয়াবহ চিত্র। ওই ইউনিয়নের সর্ববৃহত গ্রাম কলমুডাঙ্গার রাস্তায় এখনও বন্যার পানি উঠেনি তবে ছুঁই ছুই করছে। কিন্ত গ্রামের পূর্ব, পশ্চিম, এবং দিক্ষিন দিকের অনেক বসত বাড়ীতে ইতোমধ্যেই বন্যার পানি ঢুকে পড়েছে। ওই সব এলাকার কম পক্ষে ৫০টি পরিবারকে তাদের বসত ভিটা ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে নেয়া হয়েছে। এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দায়িত্বে থাকা সহকারী কমিশনার (ভুমি) মো: সোহরাব হোসেন এর সাথে কথা হলে তিনি জানান যে, আমরা সর্বত্রই বন্যার খোঁজ খবর রাখছি বন্যার পানিতে অনেক ফসলের মাঠ তলিয়ে গেলেও এখনও কোন গ্রামের বসতবাড়ীতে পানি উঠেনি তবে কোথাও কেউ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ হলে তাৎক্ষনিক ব্যাবস্থা নেয়া হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি দেখে বড় ধরণের বন্যার পূর্বাভাস মনে করা হচ্ছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com