1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
বৃহস্পতিবার, ১৪ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:০১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
বীর মুক্তিযোদ্ধা অবসর প্রাপ্ত নায়েক সুবেদার আশরাফ উদ্দিনের মৃত্যুতে বিজিবির শ্রদ্ধাঞ্জলি পীরগঞ্জে কৃষি অধিদপ্তরের ফসলের বালাই ব্যবস্থাপনা ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত ফসলের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিতে অতন্দ্র প্রহরী হিসেবে কাজ করছে কৃষকলীগ: সমির চন্দ্র ফুলবাড়ী উপজেলার ২৯ বিজিবি অভিযান চালিয়ে মাদকদ্রব্য সহ দুইজন আটক  নবাবগঞ্জে গলায় ফাঁস দিয়ে এক ব্যক্তির আত্মহত্যা ফুলবাড়ীতে সবজি লাউ গাছের বাগানের লক্ষাধিক টাকার ক্ষতিসাধন পার্বতীপুরে গৃহকর্মীকে নির্যাতন সাপাহারে উৎপাদিত বল সুন্দরী বরই কৃষিতে নতুন চমক নৌকা উন্নয়নের প্রতীক -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি নবাবগঞ্জে বঙ্গবন্ধু গ্যালারীর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

আবাসিক এলাকার পরিবেশ দূষণ করে চাউলকল নির্মাণ বন্ধের দাবীতে আউলিয়াপুর গ্রামবাসীর মানববন্ধন

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২১ জুলাই, ২০২০
  • ১৭ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক, দিনাজপুর্- পরিবেশগত ছাড়পত্র ছাড়াই অটো রাইস মিল তৈরি করায় পরিবেশ সুরক্ষার দাবিতে এবং আবাসিক এলাকায় ইন্ডাষ্ট্রিজ তৈরি না করার দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে গ্রামবাসী। আজ সোমবার দুপুর ১২টায় দিনাজপুর সদর উপজেলার পুলহাট রুপম মোড় এলাকায় ৬ নং আউলিয়াপুর ইউনিয়নের আউলিয়াপুর গ্রামের ক্ষতিগ্রস্থ এলাকাবাসি মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

সদর উপজেলার আউলিয়াপুর গ্রামের রূপন মোড়ে ক্ষতিগ্রস্থ কয়েকশত পরিবার পরিবেশ সুরক্ষার দাবিতে প্রদর্শিত ব্যানার, ফেস্টুন নিয়ে মানববন্ধন পালন করে। এসময় ফেস্টুনে “আবাসিক এলাকায় ইন্ডাষ্ট্রিজ চাইনা”, “গ্রামে অবৈধ স্থাপনা বন্ধ কর”, “পরিবেশ সুরক্ষা চাই” ইত্যাদি লেখা ফেস্টুন প্রদর্শিত হয়।

মানববন্ধনে কেবিএম কলেজের অধ্যক্ষ জানান, আবাসিক এলাকায় চালকল তৈরি হওয়ায় কলেজে ক্লাশের পরিবেশ বিঘিœত হচ্ছে। নানা সময় শিক্ষার্থীরা লিখিত অভিযোগ করে। ক্যাম্পাসে ছাই কণায় একাকার হয়ে থাকে। আমরা প্রতিকার চেয়ে বিভিন্ন দপ্তরে চিঠি দিয়েছি কিন্তু কোন প্রতিকার পাইনি। এ আন্দোলনের সঙ্গে আমরা একাত্মতা ঘোষণা করছি।

স্থানীয় গ্রামবাসী আব্দুস সাত্তার জানান, নতুন করে চালকল তৈরি হলে আশাপাশে বসবাস করা কয়েক হাজার মানুষের বসবাস অনুপোযগী হয়ে পড়বে। পরিবেশের পাশাপাশি ক্ষতি হবে মানবদেহে। বায়ুদূষণের কারণে শ্বাষ কষ্ট জনিত রোগের আশঙ্কা করছি আমরা।

ইতিপূর্বে জেলা প্রশাসক বরাবর এলাকাবাসীর পক্ষে লিখিত আবেদন করা হলে জেলা প্রশাসক পরিবেশ অধিদপ্তরকে তদন্তের নির্দেশ দেন। পরিবেশ অধিদপ্তর দিনাজপুরের সহকারী পরিচালক তদন্তের যে প্রতিবেদন জমা দেন সেখানে উল্লেখ করেন অটো রাইচ মিলটি তৈরির পূর্বে কোন পরিবেশগত ছাড়পত্র নেয়া হয়নি। রাইচ মিলটি পরিচালনা করা হলে ছাই, ধুলিকণা , কালোধোঁয়ায় পরিবেশ ক্ষতিগ্রস্থ ও জীবনযাপনে অসুবিধার সৃষ্টি হবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন। এরই পরিপেক্ষিতে জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম ১৮ সেপ্টম্বর ২০১৯ কার্যক্রমটি স্থগিতাদেশ দিয়ে একটি চিঠি পাঠান। অন্যথায় আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে মর্মে চিঠিতে জানানো হয়। লকডাউন চলাকালিন সময়ে চালকলটির কাজ সম্পন্ন করে কর্তৃপক্ষ। এলাকাবাসী সমস্যার কথা জানিয়ে পুনঃরায় জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করে। প্রতিকার চেয়ে এলাকাবাসী মানববন্ধন কর্মসূচি দিয়েছে বলে আন্দোলনকারীরা জানান।

অটো রাইচ মিলটির মালিক সদরের মাশিমপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. অহিদুল ইসলাম বলেন, আমার এই নির্মাণাধীন চালকলটি আধুনিকায়ন। এই মিল দ্বারা কোন প্রকার বায়ু এবং পানি দূষণ হবে না। তিনি আরও বলেন এই মিলের সাথে পানির কোন সম্পর্কই নেই, তাই পানি দুষণের কোন প্রশ্নই উঠতে পারেনা। আমার নির্মাণাধীন মিলটির পশ্চিম ও দক্ষিণে ৫টি মিল রয়েছে উক্ত মিল গুলো দ্বারা প্রতিনিয়ত বায়ু ও পানি দুষন হচ্ছে সে বিষয়ে কেউ কথা বলছে না কেন উল্টো প্রশ্ন জুড়ে দেন তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com