1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
সোমবার, ১১ অক্টোবর ২০২১, ১০:০২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
নবাবগঞ্জে গণহত্যা দিবস পালিত নবাবগঞ্জে বিশ্ব মানসিক স্বাস্থ্য দিবস উদযাপিত ঘোড়াঘাটে ৩৯টি পূজা মন্ডপে সরকারী অনুদানের চাল বিতরণের উদ্বোধন ঘোড়াঘাট পৌরসভা নির্বাচনে ৫ মেয়র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল দিনাজপুরে আশ্চর্যজনক খেলনা সম্বলিত “টয় কিংডম” শো-রূমের উদ্বোধন বিভেদ সৃষ্টির হাতিয়ার ধর্মান্ধতা -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি বগুড়ার শেরপুরে ট্রাকের কেবিন থেকে উদ্ধার লাশের পরিচয় মিলেছে বিদেশি সংস্কৃতির আগ্রাসন থেকে বেরিয়ে আসতে হবে  -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি ফুলবাড়ী পৌরসভার সভাকক্ষে এমজিএসপির একদিনের ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে প্রতিবন্ধী অসহায় পরিবারকে বাড়ি উপহার দিলেন ইন্ডাট্রিয়াল শাইলা সাবরিন

গোবিন্দগঞ্জে ডাক্তার নার্সের অবহেলায় নবজাতক শিশু মৃত্যু’র অভিযোগ

  • আপডেট সময় : বুধবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৪৫ বার পঠিত

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা।- গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মজিদুল ইসলাম ও নার্স বিউটি বেগমের বিরুদ্ধে শিশু হত্যার অভিযোগ থানায় দায়ের করা হয়েছে।
গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার খলসী (মিঞা পাড়া) গ্রামের মৃত-রুহুল হাসানের ছেলে সাজিদ আল-হাসান (২৪) এর থানায় দায়ের করা এজাহার সুত্রে জানা গেছে, তার স্ত্রী মোছাঃ নাইমা সুলতানা তিশা (২৩) গর্ভবতী হওয়ার পর থেকেই উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা.মজিদুল ইসলামের কাছে চেকআপ করতেন। তিনি ওই গর্ভবর্তী গৃহবধুর শারিরীক পরীক্ষা নিরীক্ষা শেষে ডেলিভারির তারিখ নির্ধারণ করে দেন ১৪ সেপ্টেম্বর/২০। কিন্তু নির্ধারিত তারিখের আগেই গত ৩০ আগষ্ট ওই গর্ভবর্তীর পেটের বেদনা উঠলে এজাহারের স্বাক্ষী মোছাঃ মালেকা পারভীন (৪৫), মোছাঃ মুনছুর পারভীন (৪৩) সন্ধ্যা অনুমান ৬.৪০ মিনিটের দিকে চেকআপের জন্য ভাড়াকৃত সিএনজি যোগে ডা.মজিদুলের ব্যক্তিগত চেম্বার-নর্থ বেঙ্গল ডিজিটাল ডায়াগনোষ্টিক সেন্টারে নিয়ে আসে। ডা. মজিদুল ইসলাম ওই গর্ভবতীকে না দেখে তার চেম্বারের দ্বি-তল (ভবন) থেকে মোবাইল ফোনে উপজেলা হাসপাতালের কর্তব্যরত নার্স মোছাঃ বিউটি বেগম (৪৮) এর সাথে কথা বলে তাদের হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। তার কথামত ওই গর্ভবতীকে জরুরী হাসপাতালে নেওয়া হয় এবং সন্তান ডেলিভারির জন্য তারাহুড়া করে ডেলিভারি রুমে নেয়া হয়। নার্স বিউটি বেগম ২ জন আয়ার সহযোগিতায় ডেলিভেরি হওয়ার ব্যথা উঠানোর জন্য ইনজেকশন করেন এবং পেটে স্ব-জোরে ঘুষি মেরে পেটের উপর প্রবল চাপ প্রয়োগ করে ডেলিভেরি চলাকালে নার্স বিউটি বেগম মোবাইলে সারাক্ষণ কথা বলতে বলতে নবজাতক সন্তানটির গলাটিপে ধরে জোরপূর্বক টানাহেচড়া করে ভূমিষ্ট করায়। ভূমিষ্ট হওয়ার পর নবজাতক পুত্র সন্তানের নারী না কাটিয়া মায়ের বুকের উপর স্ব-জোরে ছুরে মারিয়া বকাবকি করে হাসপাতাল থেকে বের হয়ে যায়। এরপরে এজাহারে উল্লেখিত স্বাক্ষীগণ ডেলিভেরি রুমে যেয়ে নবজাতক সন্তানকে খিচুনি উঠা, মাথা তুলতুলে নরম, গলায়, বুকে, হাতে-পায়ে আঘাতের চিহৃ দেখতে পায়। নবজাতক সন্তানের বিষয়টি কর্তব্যরত চিকিৎসককে অবহিত করলে দ্রæত বগুড়া (শজিমেক) হাসপাতালে রিফার্ড করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নবজাতক সন্তানের নাক দিয়া রক্ত ঝড়ে এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ৩১ আগষ্ট সকাল অনুমান ১০.২০ মিনিটে শিশুটি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।
নবজাতক শিশুর পিতা সাজিদ আল-হাসান সন্তান হত্যার অভিযোগ নিয়ে এসে ৩১ আগষ্ট ওই দিন বিকেলে ডা.মজিদুল ইসলাম, নার্স বিউটি বেগম সহ অজ্ঞাত ২ জন আয়ার নাম উল্লেখ করে থানায় একটি এজাহার দায়ের করেন।
গোবিন্দগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) আফজাল হোসেন থানায় এজাহার দায়ের করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার সচেতন মহলের অভিযোগ প্রতিনিয়তো গর্ভবতী মায়ের সন্তান ডেলিভারির নামে নার্স সহ সংশ্লিষ্ট দায়িত্বরত কর্মকর্তাগণ দায়িত্ব পালনে চরম অবহেলা করার কারণে অকারণে প্রায়ই নবজাতক সন্তান হাসপাতালে মারা যাচ্ছেন। তদন্ত সাপেক্ষে এসব জড়িত ব্যক্তিদের আইনের আওতায় নিয়ে আসার দাবী তারা জানান।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com