1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ০২:৫০ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পীরগঞ্জে গ্রাম্য সালিশে শ্লীলতাহানির ঘটনা মিমাংসা রংপুর নগরীতে যানবাহনের সাথে বেড়েছে মানুষের চলাচল খুলছে দোকানপাট রংপুরে বেড়েছে শনাক্তের হার: আরও ১৫ জনের মৃত্যু রংপুরের বদরগঞ্জে এক নারীকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ বগুড়া র‌্যাবের পৃথক পৃথক অভিযানে ৮ মাদক ব্যবসায়ীসহ ১৬ জন জুয়াড়ি গ্রেফতার দৈনিক তিস্তার সম্পাদক মরহুম আলহাজ্ব মিজানুর রহমানের চল্লিশা ও দোয়া খায়ের অনুষ্ঠিত ঘোড়াঘাটে বিদ্যুৎ স্পৃষ্ট হয়ে কৃষকের মৃত্যু উপজেলা চেয়ারম্যানের রোগমুক্তি কামনা করে ঘোড়াঘাটে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত  নবাবগঞ্জে অপসোনিন এর সেলসম্যানের ঔষধ চুরি ঘটনা ধরা পড়ায় অপসোনিনে ঔষধ বর্জন ঘোড়াঘাট উপজেলা চেয়ারম্যানের রোগমুক্তি কামনায়  বিশেষ দোয়া  অনুষ্ঠিত 

গোবিন্দগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা কোটার আওতাভুক্ত না হয়েও সাত জনের সরকারি চাকরি লাভ

  • আপডেট সময় : সোমবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২০
  • ২৩ বার পঠিত

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা।- গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে জাল জালিয়াতির মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় নিয়োগ পাওয়া সাত জনের খোঁজ পেয়েছে প্রশাসন। গত ১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখে জেলা প্রশাসক বরাররে দাখিল করা এক আবেদনের প্রেক্ষিতে তদন্তে সত্যতা পেয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। জেলা প্রশাসকের ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখের ০৫.৫৫.০২০০.০২২.৩৮.০০২.১৮.১৬০১ নম্বর স্বারক মূলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রামকৃষ্ণ বর্মন গত ১৯ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখের ৯৯৪ স্মারকে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মুক্তিযোদ্ধার জাল সনদে চাকুরীকরণ প্রসঙ্গে প্রতিবেদন দাখিল করেন।

প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়, অভিযোগকারীর আবেদনে উল্লেখিত সাত জন সহকারী শিক্ষক ও গাজীপুরে অবস্থিত কৃষি গবেষণা ইন্সটিটিউটের একজন সহকারী উপ-পরিচালক মুক্তিযোদ্ধা কোটায় চাকরীর বিষয়টি স্বীকার করেন। প্রতিবেদনে আরও উল্লেখ করা হয় দাখিলকৃত কাগজপত্রে লাল মুক্তি বার্তা ও গেজেটে তাদের নাম নেই এবং তারা মুক্তিযোদ্ধার স্বপক্ষে কোন মূল কাগজপত্র দেখাতে পারেনি।
অভিযুক্ত ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছেন সুখানদিঘি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে চাকরিরত মোছা. রাফিয়া মোর্শেদা, সাতাইল-বাতাইল বিদ্যালয়ের মোছা. কবিতা খাতুন, নিয়ামতের বাইগুনি বিদ্যালয়ের মোছা. মুন্নী খাতুন, ২নম্বর ধানখনিয়া বিদ্যালয়ের মোছা. নুরুন্নাহর, গাড়ামাড়া বিদ্যালয়ের মোছা. গুলবাহার, বামনহাজরা বিদ্যালয়ের মোছা. সুলতানা পারভীন। গাজীপুরে অবস্থিত কৃষি গবেষণা ইন্সটিটিউটের সহকারী উপ-পরিচালক নূরে হাবীবা।
অপরদিকে দামগাছা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোছা. আম্বিয়া খাতুন। তিনি মুক্তিযোদ্ধার নাতনি কোটায় চাকরি পেয়েছেন।
প্রকৃতপক্ষে তার আপন নানা মুক্তিযোদ্ধা নন। নানার বড় ভাই মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন এবং তার নাতনি হিসেবে তিনি চাকরি পেয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com