রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:০৫ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
রংপুরে ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত ঘোড়াঘাটে চাচা-ভাতিজা হত্যা মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার নিরাপত্তা চেয়ে সদ্য বদলি  হওয়া পরিচালকের আবেদন স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে ফুটবলার নাজমুল এর পীরগঞ্জে বাশিস এর নব-নির্বাচিত কমিটির শপথ গ্রহণ স্মার্ট পুলিশিং কার্যক্রম শিঘ্রই চালু করা হবে -রংপুরে অতিরিক্ত আইজি ঘোড়াঘাটে সড়ক দূর্ঘটনায় একই পরিবারের ২ জন নিহত আহত ৩ জন দেশ বিরোধী কর্মকান্ডকে রুখতে রংপুরে আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশ দিনাজপুরে বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার উপহার শীতবস্ত্র শনিবারে জেলা আঃলীগের নব-নির্বাচিত কমিটির সংবর্ধনা

দায়িত্বে ছিলেন দুইজন অকাম করলেন কোনজন ? পীরগঞ্জের কুমেদপুর ইউনিয়ন পরিষদের গুদাম থেকে জিআর এর চাউল উধাও বিতরণ রেজিষ্টার জব্দ!

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই, ২০২০
  • ৪৯৯ বার পঠিত

সুলতান আহমেদ সোনা।- রংপুর জেলার পীরগঞ্জে কারেনা কালে দুঃস্থ অসহায় ও কর্মহীনদের খাদ্য সহায়তার জন্য সরকারের দেয়া জি,আর কর্মসূচীর চাউল বিতরণ এবং মজুদ নিয়ে চেয়ারম্যান ও ট্যাগ অফিসারের মধ্যে রশি টানাটানি শুরু হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে, জি আর এর চাউল কিছু বিতরণ করে বাদবাকী চাউল কৌশলে কালো বাজারে বিক্রী করা হয়েছে। অবশ্য এই অভিযোগের সুত্র ধরে ১৫ জুলাই ২০২০ বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে কুমেদপুর ইউনিয়ন পরিষদের রসুলপুরস্থ খাদ্যগুদামের সন্নিকটে দুলা মিয়ার গুদাম থেকে ১০ বস্তা চাউল জব্দ করে উপজেলা প্রশাসন। জানা যায়, কুমেদপুর ইউনিয়নের ৯৩০ জন দুঃস্থ অসহায় ও কর্মহীনদের খাদ্য সহায়তার জন্য ১০ কেজি করে মোট ১৮৬ বস্তা চাউল বরাদ্দ দেয়া হয়েছিল। ১৫ জুলাই বুধবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের ট্যাগ অফিসার (পীরগঞ্জ দারিদ্র বিমোচন কর্মকর্তা) কাজী আজিজুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান ফুয়াদ খান ও আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দসহ দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত ৬৭৫ জনের মঝে চাউল বিতরণ করা হয়। বিতরন শেষে ৫০ কেজি ওজনের ৫১ বস্তা চাউল ট্যাগ অফিসারসহ গণনা করে পরিষদের গুদামে মজুদ রাখা হয়েছিল। কথাছিল মজুদকৃত চাউল বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিতরণ করা হবে। কিন্তু ১৫ জুলাই বুধবার ঘটনার দিন সন্ধ্যায় কথা রটে,মজুদকৃত চাউল চলে গেছে কালোবাজারে। এ কথা কানে যাওয়ায় চাউল উদ্ধারে নামেন পীরগঞ্জ উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) আফতাবুজ্জামান আল ইমরান। তিনি ইউনিয়ন পরিষদের গুদামে গিয়ে চাউল মজুদ পান ১৬ বস্তা। পরে সন্ধ্যায় রসুলপুর বাজারে ইউনিয়ন পরিষদের পিছনে, চাউল ব্যবসায়ী দুলা মিয়ার গুদামে অভিযান পরিচালনা করে ওই গুদাম থেকে ১০ বস্তা চাউল জব্দ করা হয়। এ ব্যাপারে ট্যাগ অফিসার কাজী আজিজুল ইসলাম এর সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে, তিনি বজ্রকথাকে জানান, বিতরনের পর ১৫ জুলাই বুধবার তিনি ৫০ কেজি ওজনের ৫১ বস্তা চাউল পরিষদের গুদামে রেখে এসেছিলেন । অপর দিকে ইউপি চেয়ারম্যান মোশফাক হোসেন খান ফুয়াদ এর সাথে মোবাইল ফোনে কথা হলে তিনি বজ্রকথাকে জানান, বিতরনের পর গুদামে রাখা ছিল ১৬ বস্তা চাউল। এর পর চেয়ারম্যান সাহেবের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল যে, ট্যাগ অফিসার বলেছেন, তিনি ৫১ বস্তা চাউল গুদামে রেখে চলে গেছেন। এমন প্রশ্নের উত্তরে ফুয়াদ খান বলেন, তিনি কী আমার কাছে চাউলের বস্তা রেখে লিখিত কাগজ নিয়ে গেছেন ! রসিকজনরা বলছে দায়িত্বে ছিলেন দুইজন অকাম করলেন কোন জন ?

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com