শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ০৫:০১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পীরগঞ্জ উপজেলার কমিউনিটি ক্লিনিক ও উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মেডিকেল সরঞ্জাম বিতরণ রিমেলে ক্ষতিগ্রস্ত পটুয়াখালী পরিদর্শনে গেছেন প্রধানমন্ত্রী শিক্ষকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ মোস্তফা মহসিন সুন্দরগঞ্জে উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত দিনাজপুর সার্কেলের ড্রাইভিং লাইসেন্স পরীক্ষা সম্পন্ন দিনাজপুরে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদযাপনে এ্যাডভোকেসী দিনাজপুরে বিআরটিএ’র  রিফ্রেসার প্রশিক্ষণ সম্পন্ন রংপুরে উপজেলা  চেয়ারম্যান প্রার্থীর উপর হামলার অভিযোগ দিনাজপুরে দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক রচনা ও বির্তক প্রতিযোগীতা   রংপুর বিভাগের নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান- ভাইস চেয়ারম্যানের শপথগ্রহণ

পার্বতীপুরে মাদ্রাসার সহকারী সুপারের নামে দুর্নীতির অভিযোগ 

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩৫২ বার পঠিত

আশরাফুল আলম, দিনাজপুর (ফুলবাড়ী) প্রতিনিধি।- পার্বতীপুর উপজেলার সুদুর ডাঙ্গা দাখিল মাদ্রাসার সহকারী সুপার সফিউল ইসলাম এর বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। সুদুর ডাঙ্গা দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক প্রতিনিধি সদস্য মোঃ সেকেন্দার আলীর লিখিত অভিযোগে জানান যায়, সুদুর ডাঙ্গা দাখিল মাদ্রাসাতে সরকারি বিধি মোতাবেক শূন্যপদে সহকারী সুপারিনটেডেন্ট কামিল ২য় বিভাগ ৫ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পূর্ন একজন শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে মর্মে ঐ মাদ্রাসার সুপারিনটেনডেন্ট গত ২১/০৭/২০০৩ ইং সালে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। সেই মোতাবেক মোঃ শফিউল ইসলাম, পিতাঃ মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, গ্রামঃ দক্ষিণ শলনদার (কচুয়াপাড়া), পার্বতীপুর উক্ত সহকারী সুপার পদে আবেদন করেন।

পীরগঞ্জ দারুস সালাম আলিম মাদ্রাসা হতে সহকারী মৌলভী পদে ৭ বছরের অভিজ্ঞতা সম্পূর্ণ একটি ভূয়া সনদপত্র দরখাস্তের সাথে সংযুক্ত করেন। যার ইনডেক্স নং-ঊই-৩৮৯৪০৩, বেতন কোড নং-১৬, যা জুনিয়র শিক্ষক। যাহা সহকারী সুপার পদের জন্য প্রযোজ্য নহে। কিন্তু নিয়োগ বোর্ডকে ফাঁকি দিয়ে কৌশলে সহকারী সুপার পদে নিয়োগ নেন। পরবর্তীতে ম্যানেজিং কমিটি বিষয়টি জানতে পেরে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে শফিউল ইসলামের নিয়োগ সংক্রান্ত কাগজপত্রাদি তনন্ত করেন।

তদন্তে তার জালিয়াতি প্রমাণ হয় এবং শফিউল ইসলাম তাৎক্ষণিকভাবে নিজেকে অপরাধী শিকার করে সহস্তে একখানা স্বীকারোক্তি লিখে দেন। মাদ্রাসার সুপার গত ৩১/১২/২০১৮ ইং তারিখে অবসর গ্রহণ করলে শফিউল ইসলাম ভারপ্রাপ্ত সুপারের দায়িত্ব গ্রহণ করেন। বিনা রেজুলেশনে মাদ্রাসার গাছ কেটে নেন, যাহার মূল্য ৫০ হাজার টাকা।

ভারপ্রাপ্ত সুপার বর্তমান কমিটিকে না জানিয়ে একক ভাবে মাদ্রাসার অর্থ তচুরপাত করছেন ও বিধি বর্হিভূত কাজ করছেন। তাই গত ০২/০৯/২০২০ ইং তারিখে ৫০ হাজার টাকা ও ০৬/০৯/২০২০ ইং তারিখে  সোনালী ব্যাংক, ভবানীপুর শাখা, হিসাব নং-২০৯ হতে ১ লাখ টাকা উত্তোলন করেন। যে টাকার কোন হিসাব নাই। মাদ্রাসার শিক্ষক প্রতিনিধিরা বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com