রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১০:৪৪ অপরাহ্ন

পীরগঞ্জে গাছে গাছে শোভা পাচ্ছে কৃষ্ণচূড়া ফুল

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন, ২০২১
  • ১৬৬ বার পঠিত

আবু তারেক বাঁধন, পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি।- ‘কৃষ্ণচূড়া লাল হয়েছে ফুলে ফুলে, তুমি আসবে বলে’ এখন সময় কৃষ্ণচূড়ার বাহারি রঙয়ে মাতোয়ারা হবার। এই গ্রীষ্মের কড়া রোদে কৃষ্ণচূড়ার আবীর নিয়ে প্রকৃতি সেজে উঠেছে বর্ণিল রূপে। দেখলেই মনে হয় প্রকৃতিতে কৃষ্ণচূড়ার রঙয়ে আগুন জ্বলছে। যে দিকে চোখ যায় যেন সবুজের মাঝে লালের মূর্ছনা, প্রকৃতির এই অপরূপ সাজ দেখে দু’চোখ জুড়িয়ে যায়।

এমনটিই ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ পৌর শহরের প্রতিটি রাস্তা ঘাট ও গ্রামের আঁনাচে কাঁনাচে রক্তিম লাল হলুদ রঙয়ের কৃষ্ণচূড়া ফুলে ছেয়ে গেছে মাধ্যমিক ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ প্রাঙ্গন। বৈশাখ এলেই যেনো প্রকৃতির ভালোবাসার কথা জানান দিতে লাল লাল হয়ে হেঁসে উঠে এই কৃষ্ণচূড়া ফুল। চোখ ধাঁধানো কৃষ্ণচূড়া ফুলের সৌন্দর্য যেন হার মানায় ঋতুরাজকেও। ঋতুচক্রের আবর্তনে কৃষ্ণচূড়া তার মোহনীয় সৌন্দর্য নিয়ে আবারো হাজির হয়েছে প্রকৃতির মাঝে। কৃষ্ণচূড়ার লাল আবীর গ্রীষ্মকে দিয়েছে এক অন্য মাত্রা।

গতকাল বিকালে সরেজমিনে উপজেলা শহরের বিভিন্ন সড়কে গিয়ে দেখা যায়, বৈশাখে কৃষ্ণচূড়া তার লাল আবীর নিয়ে পাকা রাস্তার পাঁশে দাঁড়িয়ে আছে। দেখে মনে হচ্ছে ঋতুরাজ বসস্তের ভালোবাসা নিয়ে কৃষ্ণচূড়া তার সমস্ত রঙ প্রকৃতির মাঝে ছড়িয়ে দিয়েছে। এই কৃষ্ণচূড়া গাছের দিকে তাকালেই তার মুগ্ধতায় যে কারোর দৃষ্টি কেড়ে নেয়।

স্থানীয়রা জানান, এই কৃষ্ণচূড়া ফুল লাল ও হলুদ রঙয়ের হয়ে থাকে। আমরা না জেনে একে কৃষ্ণচূড়া বলে থাকি। লাল রঙয়ের ফুলকে কৃষ্ণচূড়া ও হলুদ রঙয়ের ফুলকে রাধাচূড়া বলা হয়। তবে হলুদ রঙে রাধাচূড়া এখন তেমন দেখা যায় না বলেই চলে। আমাদের দেশে এপ্রিল মে মাসে এই ফুল ফোটে। বছরের অনান্য সময় এই ফুল বা গাছ সচারাচর চোখে না পড়লেও এপ্রিল মে মাসে যখনি গাছে নতুন পাতা বা ফুল ফোটা শুরু করে তখনি যেন পথচারির নজর কাড়ে মনমুগ্ধকর এই কৃষ্ণচূড়া।

পীরগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের পারভেজ হাসান নামের এক শিক্ষার্থী জানান, যেদিকে তাকাই শুধু চোখে পড়ছে কৃষ্ণচূড়া ফুলের লাল আভা। প্রকৃতি যেন ফিরে পেয়েছে নতুন রুপ।

রতন শেখ নামের এক শিক্ষার্থী জানান, অন্য বছরের তুলনায় এবছর কৃষ্ণচূড়া ফুল অনেক বেশি ফুটেছে। আমরা এর সৌন্দর্য ধরে রাখতে মাঝে মাঝে মোবাইল ফোনে ক্যামেরাবন্দী করছি।

সরেজমিনে দেখা যায়, পীরগঞ্জের প্রতিটা গ্রামে গ্রামে এখন কৃষ্ণচূড়ার শাখায় শাখায় রক্তিম লাল ফুলের সমারোহ। কৃষ্ণচূড়া গাছ খুব একটা বড় হয় না। তবে এর ডাল পালা পাইকোর গাছের মতো অনেক জায়গা পর্যন্ত বিস্তৃত থাকে।

কৃষ্ণচূড়া গাছ বর্তমানে উপজেলার বিভিন্ন রাস্তারার দুই ধারে এবং বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আঙ্গিনায় শোভা পাচ্ছে। কৃষ্ণচূড়া ফুলের পাপড়ি লাল-হলুদ রঙয়ের হয় এর ভেতরে অংশে হালকা হলুদ রঙ যুক্ত অনেক দূর থেকে দেখতে মনে হয় গাছে গাছে যেন লাল আগুন জ্বলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com