1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১২:০৮ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
বগুড়ার শিবগঞ্জে বাস্তবায়িত বিষমুক্ত নিরাপদ আম বাগান পরিদর্শন করেন ইউএনও  মুজিববর্ষে শেরপুরে আনছার ভিডিপি’র উদ্যোগে গাছের চারা বিতরণ ঠাকুরগাঁও ৭ দিনের লকডাউন পীরগঞ্জে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর তৎপরতা ফুলবাড়ীতে হিজড়া সম্প্রদায়ের যাচাই বাছায়ের জন্য ও অবৈধ্য হিজড়া সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলেই দেশের মানুষের কল্যাণ ও উন্নতি হয় -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি সাপাহারে ছাত্রাবাস থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার বীরগঞ্জে শর্ত অমান্য করে বালু উত্তোলন বগুড়ায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহতদের থেকে পাওয়া গেল ৫৯ বোতল ফেন্সিডিল অভিযোগ পীরগঞ্জের এক হুজুর আর এক হুজুরের টাকা কেড়ে নিয়েছে অন্যের আর্টিকেল নিজের নামে চালিয়ে গুগল রেডলিস্টে বেরোবি শিক্ষক সমালোচনার ঝড়

ফলোআপঃ পীরগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে প্রকাশ্যে খুন: থানায় মামলা আসামী পলাতক

  • আপডেট সময় : সোমবার, ১০ আগস্ট, ২০২০
  • ৩৬৪ বার পঠিত
নিহত রনি বেগম, ঘাতক শফি

রাভী আহমেদ।- ৭ আগষ্ট ২০২০ শুক্রবার পীরগঞ্জ  (রংপুর)বাসষ্ট্যান্ডে শ্যামলী এন আর কাউন্টারের সামনে সংগঠিত রনি বেগম হত্যা কান্ডের মামলা থানায় রেকর্ড করা হয়েছে। ঘাতক শফি মিয়া পলাতক রয়েছে।
এদিকে প্রকাশ্য দিবালোকে একটি যুবক শতশত মানুষের উপস্থিতিতে টিকিট কাউন্টারের সামনে একটি মেয়ের পেটে ছুরি বসিয়ে দিয়ে বীরদর্পে চলে যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে সর্বমহলে আলোচনা-সমালোচনা অব্যাহত রয়েছে।সবার প্রশ্ন, কি এমন ঘটনা ছিল যে, রনিকে প্রাণ দিতে হলো?
এ বিষয়ে নিহত রনির পরিবার জানিয়েছে, রনি বেগমের বড় বোনের সাথে ২০১১ সালে ৯নং পীরগঞ্জ ইউনিয়নের আরিজপুর গ্রামের প্রতিবেশি ডিপটি মিয়া’র ছেলে শফি মিয়া (৩৫) এর বিয়ে হয়। সেই সুবাদে নিহত রনি বেগম ঘাতক শফি মিয়ার শালিকা ছিল। কিন্তু ২০১৪ সালে রনি বেগম এইচএসসি পাশ করে পীরগঞ্জ মহিলা ডিগ্রী কলেজে ভর্তি হলে ভগ্নিপতি শফি মিয়া নানা ভাবে তাকে কু-প্রস্তাব ও উত্যক্ত করে আসছিল। একপর্যায়ে রনি বেগম বিষয়টি মা-বাবাকে এবং তার বড় বোনকে জানালে ২০১৫ সালে শফির সংসার ছেড়ে রনির বড় বোন বাবার বাড়ি আরিজপুরে চলে আসেন। তবুও শফি মিয়া নানা ভাবে রনি বেগমকে যৌন হেনস্তাসহ রাস্তাঘাটে বের হলে তুলে নিয়ে যাওয়ার হুমকি ও কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এক পর্যায়ে শফি শালিকা রনিকে বিয়ে করেছে মর্মে নকল এফিডেভিট তৈরি করে এবং তা গ্রামে প্রচার করতে থাকে। এসব দেখে সম্মান হানির ভয়ে অভিভাবকরা রনি বেগমকে ঢাকায় আয়ের বাড়ি পাঠিয়ে দেন। রনি বেগম ঢাকায় যাওয়ার পর গার্মেন্টস-এ কাজ নিয়ে ছিল। এর পর একই ফ্যাক্টরিতে এক সাথে কর্মকরার সুবাধে পরিচিত বগুড়া জেলার ধুনট উপজেলাধীন বড়িয়া গ্রামের হোসাইন আল মাহমুদ-এর পুত্র রবিউল ইসলামের সাথে ২০১৯ সালের জুন মাসে, পারিবারিকভাবে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয় রনি বেগম। এদিকে রনির বড় বোন শফি মিয়ার স্ত্রী স্বাদীর সংসারে ফেরত না গেলে ২০১৯ সালে শফি স্ত্রীকে একতরফা তালাক প্রদান করে এবং ১০নং শানেরহাট ইউনিয়নের মেষ্টা গ্রামে আবারও বিয়ে করে।
জানা গেছে,এবার ঈদুল আযহার ছুটিতে ৪ আগস্ট ২০২০ রনি বাবার বড়িতে ঈদের দাওয়াত খেতে এসেছিল। সাথে এসেছিল স্বামী রবিউল, ননদ শান্তনা । নিহতের বড় ভাই মনোয়ার হোসেন জানায়, এরপর ৭ আগস্ট শুক্রবার রবিউল, পীরগঞ্জ থেকে ঢাকা যাওয়ার উদ্দেশ্যে স্ত্রী রনি বেগম,বোন শান্তনাসহ টিকিট কাটতে পীরগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডে এসেছিল। স্বামী রবিউল টিকিট কাটতে শ্যামলী এন আর কাউন্টারের ভিতরে যান। রনি ও তার ননদ শান্তনা কাউন্টারের বাহিরে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় হঠাৎ করে শফি মিয়া মোটর সাইকেল নিয়ে তাদের সামনে এসে দাঁড়ায়। শফি রনির ননদ শান্তনাকে আপত্তি কর কিছু কথা বলে। তখন রনি তার ননদ শান্তনাকে শফির সাথে কথা বলতে বারন করার পরেই নাকি শফি ধারালো ছুরি বের করে রনি বেগমের তলপেটে আঘাত করে পালিয়ে যায়।
আহত রনি চিৎকার দিয়ে সাথে সাথে মাটিতে পড়ে গেলে চিৎকার শুনে রনি’র স্বামী রবিউল সহ আশে পাশের লোকজন ছুটে আসে ও আহত অবস্থায় রনি বেগম কে পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। এ বিষয়ে পীরগঞ্জ থানায় শফিসহ অজ্ঞাত আরো কয়েকজনের নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে।মামলা নং-২১, তারিখ- ০৭/০৮/২০২০ইং। পোষ্ট মর্টেমের পর ৮ আগষ্ট আরিজপুর পারিবারিক কবরস্থানে রনিকে কবর দেয়া হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com