বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০২:০৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
রংপুর বিভাগের নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান- ভাইস চেয়ারম্যানের শপথগ্রহণ রংপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন প্রার্থী আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা মর্যাদার লড়াই জাতীয় পার্টির বিরামপুর পুলিশ বক্স ও বিট পুলিশিং কার্যালয়ের উদ্বোধন নদীর ভাঙন প্রতিরোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি রাস্তা পাকাকরণ কাজে ব্যাপক অনিয়ম  দেখার কেউ নেই “স্বাধীনতা সুবর্ণ জয়ন্তী পুরস্কার ২০২৩” পেল প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট রংপুরে যুবদল নেতা নয়নের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত রংপুর নগরীতে  বাড়িতে হামলা সরকারি জমি থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ  বিরামপুরে প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহে মা দিবস অনুষ্ঠিত

গাইবান্ধার সাঘাটায় নদীভাঙন হতে রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : বুধবার, ২১ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪১১ বার পঠিত

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা।- গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলার কচুয়া ইউনিয়নের রামনগর গ্রামকে বাঙালী নদীর ভাঙন হতে রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে গাইবান্ধা জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ড কার্যালয় চত্বরে এই কর্মসূচি পালন করে ওই গ্রামের দুই শতাধীক মানুষ।
রামনগর গ্রামের প্রভাষক মো. শাহ আলমের সঞ্চালনায় মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন রামনগর নদীভাঙন রক্ষা কমিটির আহবায়ক মো. আবদুল মওলা, সাধারণ সম্পাদক মো. মোস্তাফিজুর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান, ইউপি সদস্য হাবিবুর রহমান, সাঘাটা উপজেলা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক যজ্ঞেশ্বর চন্দ্র বর্মন, শিক্ষক মজিবর রহমান, পল্লী চিকিৎসক লিয়াকত আলী খন্দকার ও কলেজছাত্র আশিকুর রহমান প্রমুখ।
মানববন্ধন চলাকালে বক্তারা বলেন, কয়েক যুগ ধরে নদীভাঙনের শিকার হয়ে সাঘাটার রামনগর গ্রামটি প্রায় বিলীনের পথে। ইতোমধ্যে ওই গ্রামের কয়েক’শ পরিবার নদীভাঙনের শিকার হয়ে এখন মানবেতর জীবনযাপন করছে। তারা খোলা আকাশের নিচে ও অন্যের পতিত জমিতে আশ্রয় নিয়ে দুর্বিষহ দিন কাটাচ্ছে। অথচ পানি উন্নয়ন বোর্ড কখনো নদীভাঙনের হাত থেকে রক্ষার জন্য কোন পদক্ষেপই নেয়নি। আর তাই নদীশাসন করে এই গ্রামকে রক্ষার জন্য স্থায়ীভাবে সিসি বøক নির্মাণ করতে হবে। সেইসাথে বন্যার হাত থেকে ফসল রক্ষার জন্য এই নদীতে একটি বাঁধ নির্মাণেরও দাবি জানান বক্তারা।
মানববন্ধন শেষে গ্রামবাসী গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীর কাছে একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন। এসময় গ্রামবাসীকে আশ্বস্ত করে গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মোখলেছুর রহমান বলেন, অনুন্নয়ন রাজস্ব খাতে একটি প্রকল্পে রামনগর গ্রাম রক্ষার জন্য উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যা বরাদ্দ পাওয়া গেলে আগামী বর্ষার আগেই কাজ শুরু করা হবে। এছাড়া নির্বাহী প্রকৌশলী আরও বলেন, জরুরীভাবে কাজ করার কোন উপায় নেই। কেননা বরাদ্দ সেপ্টেম্বর মাসেই শেষ হয়ে গেছে। এখন নদীভাঙন নেই বলেও জানান মো. মোখলেছুর রহমান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com