মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, ০৯:৫৯ অপরাহ্ন

রংপুরের পীরগঞ্জে ঠুঁশি জাল দিয়ে দেশি প্রজাতির মাছ নিধন চলছে

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৫ মে, ২০২২
  • ১১ বার পঠিত

পীরগঞ্জ (রংপুর) থেকে এস এ মন্ডল।- বৈশাখ মাসে ভারি বৃষিপাত হওয়ায় শুকনো খাল বিল আবার যৌবন ফিরে পেয়েছে। খাল গুলোতে স্রোত বইছে। এই সময় দেশি মাছ নতুন পানিতে ডিম ছাড়বে। কিন্তু রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার নদী ও খাল বিলগুলোতে ঠুঁসি জাল, খরা জার, কারেন্ট জাল পেতে মারা হচ্ছে মা – মাছ।
কিন্তু পরিতাপের বিষয় এই ক্ষেত্রে মৎস্য বিভাগের কাজ করবার কথা থাকলেও সিনিয়র পীরগঞ্জ উপজেলা মৎস্য বিভাগ কোন কাজ করছে না। এলাকা ঘুরে খোঁজ কবর নিয়ে জানাগেছে পীরগঞ্জ উপজেলায় এখন ব্যাপকভাবে কারেন্ট জাল ব্যবহার করা হচ্ছে। বিলে ডোবায় গ্রামের মানুষ কারেন্টজাল দিয়ে মাছ ধরছে। শুধু তাই নয় পীরগঞ্জ উপজেলার হাট বাজার গুলোতে খোলা মেলা ভাবেই বিক্রী হচ্ছে কারেন্টজাল কিন্তু স্থানীয় প্রশাসন বা মৎস্য বিভাগ উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ নিচ্ছে না। ফলে দিন দিন কারেন্টজালের বিস্তার ঘটেছে।
আমাদের প্রতিনিধি জানিয়েছেন, উপজেলা মৎস্য অফিস থেকে দুই কিলোমিটার দুরে বড় বিলা বিলে ব্যাপক ভাবে কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরা হচ্ছে। কিন্তু মৎস্য অফিস উদাসীন। এতে সচেতন মানুষ মৎস্য বিভাগের উপরে আস্থা হারিয়ে ফেলেছে। অভিযোগ রয়েছে পীরগঞ্জ উপজেলার করতোয়া অংশে খরাজাল, আখিরা ও কুচিমুড়ি নদীতে দিনে রাতে কমপক্ষে শতাধিক মৎস্য শিকারি ঠুঁশি জাল দিয়ে দেশী মাছ নিধন করছে। রামনাথপুর ইউনিয়নের বড়রাজারাম পুর গ্রামের পিছন থেকে দলদলি নদী পর্যন্ত কমপক্ষে ৩০টি ঠুশিজাল ও খরাজাল দিয়ে ছোট ছোট মাছের পোনা ও বিভিন্ন প্রজাতির দেশীয় মাছ প্রতিদিন কমপক্ষে এক হাজার কেজি করে মাছ মেরে স্থানীয় বাজার গুলোতে বিক্রী করা হচ্ছে। কিন্তু এর কোন প্রতিকার নেই। এ ব্যাপারে মৎস্য বিভাগ দৃষ্টি দেবেন পর্যবেক্ষক মহল আশা করে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com