শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ১২:২১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পীরগঞ্জ উপজেলার কমিউনিটি ক্লিনিক ও উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রে মেডিকেল সরঞ্জাম বিতরণ রিমেলে ক্ষতিগ্রস্ত পটুয়াখালী পরিদর্শনে গেছেন প্রধানমন্ত্রী শিক্ষকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ মোস্তফা মহসিন সুন্দরগঞ্জে উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান নির্বাচিত দিনাজপুর সার্কেলের ড্রাইভিং লাইসেন্স পরীক্ষা সম্পন্ন দিনাজপুরে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন উদযাপনে এ্যাডভোকেসী দিনাজপুরে বিআরটিএ’র  রিফ্রেসার প্রশিক্ষণ সম্পন্ন রংপুরে উপজেলা  চেয়ারম্যান প্রার্থীর উপর হামলার অভিযোগ দিনাজপুরে দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক রচনা ও বির্তক প্রতিযোগীতা   রংপুর বিভাগের নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান- ভাইস চেয়ারম্যানের শপথগ্রহণ

রংপুরে ওয়াকার্স পার্টির নেতার বাড়িতে হামলা-ভাংচুর

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৫২ বার পঠিত

রংপুর থেকে সোহেল রশিদ।- রংপুর মহানগরীতে রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে ওয়াকার্স পার্টির নেতা ও সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র প্রার্থী কাজী মাজিরুল ইসলাম লিটনের বসতবাড়িতে ব্যাপক হামলা-ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে। গত শনিবার বিকেলে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় অর্ধ কোটি টাকার মালামাল লুটপাটসহ আরো কয়েক লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন হয়। হামলায় এক আইনজীবিসহ ৪জন গুরুতর আহত হয়েছেন। এঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হলেও অজ্ঞাত কারণে পুলিশ এখনো কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি। তবে মামলায় আসামী হিসাবে যাদের নাম রয়েছে তারা আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত বলে বাদি জানায়। এতে চরম নিরাপত্ত্বাহীনতায় ভুগছে ওয়াকার্স পার্টির নেতা লিটনসহ তার পরিবার। তারা বর্তমানে অন্যের বাড়িতে আশ্রিতা হিসাবে দিনানিপাত করছেন।
থানায় লিখিত অভিযোগ, ভুক্তভোগীর পরিবার ও স্থানীরা জানায়, রংপুর মহানগরীর আলমনগর স্টেশন রোডস্থ শাপলা চত্বর এলাকায় পৈত্রিক বসতবাড়িতে পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছেন রংপুর জেলা ওয়াকার্স পার্টির নেতা ও সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র প্রার্থী কাজী মাজিরুল ইসলাম লিটন। উক্ত বসতবাড়িটি স্থানীয় বাসিন্দা নাজমুল করিম ডলার অবৈধভাবে দাবি করে আসছেন। ইতিপূর্বে ডলারের পিতা শামসুদ্দিন আহমেদ আমার পিতা কাজী মফিজ উদ্দিন আহমেদকে ভাড়াটিয়া হিসাবে অবৈধ দখলাদার চিহিৃত করে আদালতে মামলা দায়ের করেছিলেন। পরবর্তীতে বিজ্ঞ আদালত মামলাটি খারিজ করে দেয় এবং আমার পিতার পক্ষে রায় প্রদান করেন। পরবর্তীতে মামলাটির বিরুদ্ধে ডলারের পিতা শামসুদ্দিন আহমেদ হাইকোর্টে রিভিউ মামলা দাযের করেন। যা বর্তমানে বিচারাধীন রয়েছে। এছাড়াও মো: দানেশ নামের একজনকে বাদি করে জমির মালিকানা দাবি করে আদালতে মামলা দায়ের করা হলেও আদালত উক্ত মামলায় লিটনের পিতা কাজী মফিজ উদ্দিন আহমেদের পক্ষে রায় দেয়। এর পর থেকে নাজমুল করিম ডলার ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। সে তার লোকজন দিয়ে লিটনকে বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমকি দিতে থাকে। এব্যাপারে নিরাপত্তার জন্য কোতয়ালী মেট্রোপলিটন থানায় জিডি করেন ওই ওয়ার্কাস পার্টির নেতা।
এরই মধ্যে গত শনিবার বিকেল ৩টার দিকে বসতবাড়িটি নিজের বলে দাবি করে নাজমুল করিম ডলারের নেতৃত্বে রফিকুল আলম, শরীফ খান, মুরাদ হোসেন ও তমালসহ দেড় শতাধিক লোকজন রামদা, ছুরি সহ দেশীয় অস্ত্র শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে লিটনের বাড়ির মুল গেট ভাংচুর করে বাড়ির ভিতর প্রবেশ করে। এতে তার স্ত্রী শামীমা ইয়াছমিন ও ছেলে ঋণ তাদের বাঁধা দিলে তারা হামলার শিকার হন। তাদের ব্যাপক মারধোর করা হয়। এসময় বাড়ির নগদ ১৮লক্ষ টাকা, সাড়ে ১৬ লক্ষ টাকার স্বর্ণালংকারসহ ল্যাপটপ, মোবাইল, বাড়ির এঙ্গেল যুক্ত ছাদ সহ বিভিন্ন রকম মালামাল লুটপাট করে নিয়ে যায়। ভাংচুর করা হয় বাড়ির আসবাবপত্রসহ মালামাল। এতে কয়েক লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়। পরে এক পর্যায়ে আসামীরা ওয়ার্কাস পার্টির নেতা কাজী মাজিরুল ইসলাম লিটনসহ তার স্ত্রী ও ছেলেকে জোর পূর্বক বাড়ি হইতে টেনে হেঁচড়ে বের করে পার্শ্ববর্তী মুরাদ মেশিনারীজ নামক প্রতিষ্ঠানে আটকে রেখে নির্যাতন করা হয়। এসময় খবর পেয়ে তার বোন জামাই সিনিয়র আইনজীবি উৎপল আদনান ইসলাম আসলে আসামীরা তাকেও মারধোর করেন। এতে তার মুখ ও ঠোট ফেটে রক্তাক্ত হয়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে ওয়াকার্স পার্টির নেতা লিটনসহ তার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। পরিবার নিয়ে অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। এব্যাপারে কাজী মাজিরুল ইসলাম লিটন বাদি হয়ে কোতয়ালী মেট্রোপলিটন থানায় ১০ জনের নাম উল্লেখ্য পূর্বক অজ্ঞাত কয়েকজনের নামে মামলা দায়ের করেছেন। আসামীরা আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে জড়িত বলে বাদি জানিয়েছেন। তবে মামলা দায়ের হলেও পুলিশ এখন কোন আসামী গ্রেফতার করতে পারেনি বলেও বাদি অভিযোগ করেছেন।

এব্যাপারে কোতয়ালী মেট্রোপলিটন থানার ওসি মাহফুজুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com