1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ০৭:২২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
সাপাহারের তরুণ উদ্যোক্তা শিবলীর সাফল্য:  ফল রক মেলন চাষের উজ্জল সম্ভাবনা দিনাজপুর পৌরসভায় স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ জেলা পরিষদের ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে সুন্দর্য বর্ধন সরকার ঘোষিত লকডাউনে জনশূন্য পার্বতীপুর রেলওয়ে জংশন বেষ্ট পেপার অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন পীরগঞ্জের কৃতি সন্তান রাজু দলীয় শৃংঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে রংপুর জেলা ছাত্রদলের সভাপতিকে অব্যাহতি নবাবগঞ্জে মাইক্রোবাসের সাথে মটর সাইকেলের ধাক্কায় দুইজন আহত নবাবগঞ্জে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১ পীরগঞ্জে স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি রশিদ সম্পাদক বান্না পীরগঞ্জে শিক্ষক সমিতির মার্কেট নির্মাণ কাজ উদ্বোধন

রংপুর নগরীর পাড়া-মহল্লায় হাঁটুপানি : ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় দুর্ভোগ

  • আপডেট সময় : সোমবার, ২০ জুলাই, ২০২০
  • ৩২ বার পঠিত

হারুন উর রশিদ সোহেল ।- বর্ষাকালের বৃষ্টি আর উজানের ঢল এখনো শেষ হয়নি। আকাশের বুকে ক্ষেপে আছে শ্রাবণের কালো মেঘ। থেমে থেমে নামছে বৃষ্টি। সঙ্গে বজ্রপাতও। দিনভর এমন বৃষ্টিপাতে রংপুর নগরীসহ জেলায় সৃষ্টি হয়েছে জলাবদ্ধতা। পানি বেড়েছে তিস্তা, ঘাঘট, মানাস, আখিরা, যমুনেশ্বরী, করতোয়া ও টোপাসহ ছোট বড় নদ-নদীগুলোতে। গ্রাম-শহর সবখানেই বৃষ্টির পানিতে থৈ থৈ করছে খাল-বিল।
রংপুর মহানগরের জলাবদ্ধতা নিরসনের একমাত্র খাল শ্যামা সুন্দরীও এখন পানিতে টইটম্বুর। রবিবার ভোর থেকে শুরু হওয়া ভারী বর্ষণে নগরীর বেশির ভাগ পাড়া-মহল্লায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। নিচু এলাকাগুলো এখন হাঁটুপানিতে নিমজ্জিত। কোথাও কোথাও ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় বৃষ্টির পানি জমে আছে। এতে দুর্ভোগ বেড়েছে সাধারণ মানুষের।
রবিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত রংপুর নগরীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে গেছে রাস্তা। কোনো কোনো এলাকাতে ড্রেনেজ ব্যবস্থা থাকার পরও পানি বের হতে পারছে না। আবার কোথাও দেখা গেছে ড্রেনের মুখে ময়লা-আবর্জনার স্তুুপ জমে আছে। তবে নগরীর ৩৩টি ওয়ার্ডের মধ্যে সতেরটি ওয়ার্ডের বেশির ভাগ এলাকায় মারাত্মক জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে।খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, নগরীর কামারপাড়া, মুলাটোল, বাবুখাঁ, হাবিবনগর, ধাপ হাজীপাড়া, আমাশু, কুকরুল, জুম্মাপাড়া, সিটি বাজার, শালবন, আশরতপুর, ঘাঘটপাড়া, কলেজপাড়া, হাবিবনগর, তামপাট, লক্ষণপাড়া, সর্দারপাড়া, সাতমাথাসহ বিভিন্ন এলাকার পাড়া-মহল্লাতে পানি জমে আছে। কোথাও কোথাও পানিবন্দি হয়ে আছে অনেক পরিবার। এতে দুর্ভোগ বেড়েছে। শহরের সড়কগুলোতে জলাবদ্ধতায় ব্যাহত হচ্ছে যানবাহন চলাচল। সরেজমিনে দেখা গেছে, শ্যামা সুন্দরী খালে পানি ভরাট। প্রতিটি ড্রেনের সংযোগ খালের মুখে পানিতে থৈ থৈ করছে। কিছু কিছু জায়গাতে পলিথিন, ময়লা-আবর্জনার স্তুুপ আর কচুরিপানার কারণে শ্যামা সুন্দরীতে পানি প্রবাহ বিঘ্ন হচ্ছে। তবে বিভিন্ন এলাকায় নিজ উদ্যোগে ড্রেন পরিষ্কার করাসহ জলাবদ্ধতা নিরসনে কাজ করতে দেখা গেছে স্থানীয়দের। সিটি করপোরেশন থেকেও শহরের ড্রেনের মুখগুলো পরিষ্কার করতে দেখা যায়।
এদিকে গত ১২ ঘণ্টায় ১৮৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অফিস। বৃষ্টি আর অব্যহত বন্যা পরিস্থিতিতে নদী তীরবর্তী প্লাবিত নিম্নাঞ্চলে আবারও পানি বেড়েছে। আমন ধানের বীজতলা, পাট, শাক-সবজির খেতসহ ছোট-বড় পুকুর, খাল, নালা পানিতে ছাপিয়ে গেছে। একই অবস্থা শহরতলীর নিচু এলাকাগুলোতেও।নগরীর ধাপ হাজীপাড়া এলাকায় মামুনুর রশিদ মামুন ও গিয়াস উদ্দিন জানান, রংপুর সিটি করপোরেশন প্রতিষ্ঠার আট বছর হয়েছে। অথচ আজও ওই এলাকাতে ড্রেন তৈরি হয় নি। সামান্য বৃষ্টি হলেই কাঁদাপানি জমে থাকে।তামপাট এলাকার মাওলানা নুরুল আবছার দুলাল জানান, রংপুরকে সিটি কর্পোরেশন করা হয়েছে কিন্তু বর্ধিত এলাকার মানুষ নাগরিক সেবা বঞ্চিত। বর্ধিত এলাকাগুলোতে এখন ড্রেনেজ ব্যবস্থা গড়ে উঠেছে। অনেক সড়ক কাঁচা থাকায় পানি জমে কাদায় পরিনত হয়েছে। এতে দুর্ভোগ বাড়ছে। তবে ভিন্ন চিত্র দেখা গেছে নগরীর মুলাটোল কোতোয়ালী থানা মোড়ে। ড্রেনেজ ব্যবস্থা থাকার পরও হাঁটুপানিতে তলিয়ে গেছে গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কটি। শনিবার মধ্যরাত থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টিপাতে শহরের বিভিন্ন বাসা-বাড়িতেও জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে।এ ব্যাপারে রংপুর সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র মাহমুদুর রহমান টিটু বলেন, অনেক এলাকাতে ড্রেনের পানি শ্যামা সুন্দরী খালে যাচ্ছে না। খালের মুখের সাথে ড্রেনের সংযোগ থাকার পরও এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। কারণ শ্যামা সুন্দরী খাল এখন পানিতে ভরা। তবে পানি কমে আসলে আর জলাবদ্ধতা থাকবে না।
তিনি আরও বলেন, এখন নগরীর বেশির ভাগ এলাকাতে রাস্তাঘাট ও ড্রেন নির্মাণ কাজ করা হচ্ছে। এ কারণে অনেক জায়গায় সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ একটু বেশি বেড়েছে। নগরীতে ড্রেনেজ ব্যবস্থা উন্নত হচ্ছে। আগামী এক থেকে দেড় বছর পর এমন দুর্ভোগ থাকবে না ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com