1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
নবাবগঞ্জে ৪৫০ পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান বিরামপুরের গৃহহীনরা পেল শেখ হাসিনার উপহার জমি ও ঘর জাহাঙ্গীরাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ে ব্যতিক্রমধর্মী অনলাইন শ্রেণি কার্যক্রম ফুলবাড়ী উপজেলার সীমান্ত এলাকায় করোনা ভাইরাস রোধে কাজ করে চলেছে বিজিবি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিনাজপুরে উদ্বোধন করলেন ২ হাজার ৫১৫টি গৃহ পার্বতীপুরে প্রধানমন্ত্রী’র ঘর পেলো আরও ১০০ পরিবার বগুড়ার শেরপুরে মসজিদে তালা লাগিয়ে জমি দখল মুসুল্লীদের নামাজ আদায় বন্ধ ঘোড়াঘাটে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন ৫০০ পরিবার  সাপাহারে গৃহহীন ৬০টি পরিবার পেল প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে জমি ও বাড়ি  ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ দুই নারী আটক

শেখ হাসিনা নৃ-তাত্ত্বিক জনগোষ্ঠীর অর্থনৈতিক সচ্ছলতা সৃষ্টির প্রয়াস অব্যাহত রেখেছেন – গোপাল এমপি

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৪ মে, ২০২১
  • ১৪ বার পঠিত

ফজিবর রহমান বাবু।- দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল বলেছেন, বাংলা ও বাঙালির সংস্কৃতি রক্ষা করার জন্য আদিবাসীদের ঐতিহ্য-সংস্কৃতি বড় শক্তিধর স্তম্ভ। আজ সেই সংস্কৃতিকে আরও বেশি সমৃদ্ধ করতে আদিবাসীদের সাংস্কৃতিক বিকাশ অনিবার্য। এছাড়া বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে নৃ-তাত্তি¡ক জনগোষ্ঠীর মানুষদের মূল স্রোতধারায় সম্পৃক্ত করার জন্য এবং তাদের অর্থনৈতিক সচ্ছলতা সৃষ্টির প্রয়াস অব্যাহত রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৪ মে ২০২১ মঙ্গলবার দুপুরে কাহারোল উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারী হাসপাতালের আয়োজনে সমতল ভুমিতে বসবাসরত অনগ্রসর ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর আর্থ সামাজিক ও জীবন মানোন্নয়নের লক্ষ্যে সমন্বিত প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় নির্বাচিত সুফলভোগী ২৬টি পরিবারের মধ্যে উন্নতজাতের ক্রসব্রিড বকনা, দানাদার খাদ্য ও গৃহ নির্মান সামগ্রী বিতরণকালে এসব কথা বলেন এমপি গোপাল। এমপি গোপাল আরও বলেন, পাহাড়ে নৃতাত্তি¡ক জনগোষ্ঠীর সুখ কেড়ে নিয়েছিল জিয়াউর রহমান। অশান্তি, সংঘাত সৃষ্টি করেছিল পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর মাঝে। আজকের তাদের মাঝে শান্তি ফিরিয়ে এনেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা ক্ষমতায় না এলে এই জনগোষ্ঠীর বিলুপ্ত হতে বাধ্য হতো। তাই নৃ-তাত্তি¡ক জনগোষ্ঠীদের ভাগ্য উন্নয়নের একমাত্র শেখ হাসিনাই সকল উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনিরুল হাসান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক সরকার, জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. শাহিনুর আলম, উপজেলা স্বাস্থ ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. শফিউল আজম, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মো. রায়হান আলী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি একেএম ফারুক, উপজেলা ভেটেরিনারী সার্জন ডা. মো. দিদারুল আহসান। উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মো. রায়হান আলী জানান, উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারী হাসপাতাল হতে নির্বাচিত ৭৭১ টি সুলফভোগী পরিবারকে ৭টি প্যাকেজ সহায়তা প্রদান করা হবে। তার মধ্যে ৩৯টি পরিবারকে বকনা গরু, ৩৯টি পরিবারকে মহিষ, ৩৯ টি পরিবারকে এঁড়ে গরু, ১১৬টি পরিবারকে ছাগল, ১৫৪টি পরিবারকে ভেড়া, ১৯৩টি পরিবারকে মুরগি এবং ১৯৩টি পরিবারকে হাঁস প্রদান করা হবে। এরই ধারাবাহিকতায় ২৬টি পরিবারকে উন্নত ক্রসব্রিড বকনা গরু, দানাদার খাবার ১২৫ কেজি এবং গৃহ নির্মান উপকরণ হিসেবে ১০০ স্কয়ার ফিট ঢেউটিন, ৪টি আরসিসি পিলার ও ১৯০ টি ইট বিতরণ করা হয়। তিনি বলেন, প্রকল্পের শুরুতে জরিপের মাধ্যমে ৭৭১টি সমতল ভুমিতে বসবাসরত অনগ্রসর ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী পরিবারকে নির্বাচন করা হয়। আর এই প্রকল্পের মেয়াদ ৩ বছর।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com