1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
বুধবার, ১২ মে ২০২১, ০২:১০ পূর্বাহ্ন

২৪ আগস্ট কে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস হিসেবে ঘোষণার দাবীতে গাইবান্ধায় নারীমুক্তি কেন্দ্রের সমাবেশ ও বিক্ষোভ

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২৫ আগস্ট, ২০২০
  • ২৩ বার পঠিত

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল, গাইবান্ধা।- বাংলাদেশ নারীমুক্তি কেন্দ্র গাইবান্ধা জেলার উদ্যোগে ২৪ আগস্ট কে রাষ্ট্রীয়ভাবে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস হিসেবে ঘোষণার দাবীতে আজ সকাল ১১ পৌর শহীদ মিনারে নারী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি সুভাসিনী দেবীর সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য রাখেন বাসদ মার্কসবাদী গাইবান্ধা জেলার আহবায়ক কমরেড আহসানুল হাবীব সাঈদ, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী, রাহেলা সিদ্দিকা, লিজা উল্যা প্রমুখ।
বক্তাগন বলেন ১৯৯৫ সালের এই দিনে দিনাজপুরের কিশোরী ইয়াসমিন কে একদল পুলিশ পৈশাচিকভাবে গণধর্ষণ করে হত্যা করে। প্রতিরোধ গড়ে ওঠে দিনাজপুরসহ সারাদেশে। আন্দোলন সংগ্রামে পুলিশের গুলিতে অনেকে শহীদী মৃত্যু বরণ করে এবং হত্যাকারীদের ফাঁসি হয়। সেই শহীদদের স্মরণ ও সেই চেতনাকে ধারন করে সেদিন সম্মিলিত নারী সমাজ এই দিনটিকে রাষ্ট্রীয়ভাবে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ হিসাবে ঘোষনার দাবি জানান। সেই দাবি আজও অপুরিত। অবিলম্বে এই দিনটিকে রাষ্ট্রীয়ভাবে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস হিসেবে ঘোষণার আহবান জানান। এছাড়াও নেতৃবৃন্দ বলেন সারাদেশের ন্যায় এই সময় গাইবান্ধা জেলায়ও কয়েকটি নারী শিশু নির্যাতন-ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে। ধর্ষক বিত্তশালী ও ক্ষমতাবান হওয়ায় পারও পেয়ে যাচ্ছে। স¤প্রতি অন্যতম ঘটনা হলো গাইবান্ধা সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ইউনুস আলী তার গৃহপরিচারিকা কিশোরী কে ধর্ষণ করে। এবং তার বিরুদ্ধে থানায় সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা হলেও তাকে গ্রেফতার করা হচ্ছে না, ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী লামিয়ারও ধর্ষন কারীসহ অনেক নির্যাতক কে এখনও গ্রেফতার করা হয়নি ফলে বাড়ছে নির্যাতিতার সংখ্যা চোখে পরছে না প্রশাসনিক তেমন কোন তৎপরতা। যুক্ত হলো আর এক খুনের ঘটনা যদি সুষ্ঠু বিচার হতো তাহলে হয়তো সেতুকে অকালে খুন হতে হত না। ফলে নেতৃবৃন্দ উদ্বেগ ও বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন প্রশাসনের এ ভুমিকার কারনে অপরাধ প্রবনতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমাদের সমাজে বিচার হীনতার কারনে খুন, ধর্ষন বেরেই চলেছে।
তাই অবিলম্বে সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে গিদারীর কলেজ ছাত্রী নববধু সেতুর হত্যাকারীসহ গাইবান্ধা জেলায় সংগনঠিত নারী শিশু নির্যাতনকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবী জানান। সেই সাথে মাদক-জুয়া, অপসংস্কৃতি-অশ্লীলতা, পর্নোগ্রাফি, নারী-শিশু নির্যাতন হত্যা ও সা¤প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে গণআন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানান। সমাবেশ শেষে শহরে একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com