শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ১১:৪১ পূর্বাহ্ন

ঈদকে সামনে রেখে হাট বাজারের খবর

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ৩১ জুলাই, ২০২০
  • ১৯০ বার পঠিত

বজ্রকথা প্রতিবেদক।- ঈদ এলেই মার্কেটে যাওয়া, জামা কাপড় কেনা কাটায় ব্যস্ত থাকেন সকলেই। কিন্তু করোনা, বন্যা, আর্থিক সংকটের কারনে জেলা, উপজেলা, গ্রামের হাট বাজার গুলোতে তেমন কোন কেনাকাটা বা ভিড় নেই এবার। তবে লাগাতার বর্ষণের কারনে কোরবানির পশু কিনতে ঠেলা ঠেলি, কাঁদা মাখি অবস্থায় পড়তে হয়েছে গরু – ছাগল ক্রেতা – বিক্রেতাদের। তার পরেও কর্তারা বেশ খুশিই ছিলেন; কারণ এবার গরু ছাগলের দাম নাকি অনেকটা কমই ছিল। কিন্তু তাতে খামারী, ব্যবসায়ি ও পশু লালন পালনকারী কৃষক পরিবার গুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে।
এখানেই শেষ নয় । ঈদকে সামনে রেখে কামার শালায় যেতে হয়েছে বটি ছুরি ধার দিতে এবং কাঁচা বাজরে য়েতে হয়েছে মসলা, পিঁয়াজ,মরিচ,আদা,রসুন কিনতে।অনেকের মতে মসলাপতির দাম খানিকটা স্বাভিকই আছে। ৩১ জুলাই শনিবার পীরগঞ্জের হাট বাজারে পিঁয়াজ বিক্রি হয়েছে এলসি ৩০ টাকা, দেশি ৪০ টাকায়। আদা দেশি ২২০ এবং হাইব্রিড ২০০ টাকায়। রসুন ১১০ টাকা, কাঁচা মরিচ ১৬০ টাকা, শুকনা মরিচ ২২০, কারেন্ট মরিচ ৩৪০ টাকা। জিরা প্রতিকেজি ৩২০ টাকা, গোলমরিচ প্রতিকেজি ৬০০ টাকা,দারুচিনি প্রতিকেজি ৩৬০ টাকা, ছোট এলাচ প্রতিকেজি ৪ হাজার টাকা, বড় এলাচ ১ হাজার টাকা,লবঙ্গ ১২০০ টাকা, মেতি ২০০ টাকা জায়ফল ১ হাজার টাকা এবং তেজ পাতা বিক্রী হয়েছে প্রতিকেজি মাত্র ২০০টাকায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com