1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
শনিবার, ১৫ জানুয়ারী ২০২২, ০২:৩৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
বীরগঞ্জে স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী ও ‘শব্দশর’ সাহিত্য সংগঠনের দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি উদযাপন ঘোড়াঘাটে চার ইউনিয়নে ৩টি পদে প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ বীরগঞ্জে শীতের আগমনে জমে উঠেছে পিঠা-পুলির দোকান দিনাজপুর শহরে উড়াওপাড়া মহল্লা আওয়ামী লীগের সভা অনুষ্ঠিত বগুড়ার শেরপুরে কলেজছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১ বগুড়ার শেরপুরে নবারুন ঐক্য সংঘের উদ্যোগে ভ্যানগাড়ি বিতরণ বগুড়ার শেরপুরে নারী কনস্টেবলের আত্মহত্যা “দৈনিক পত্রালাপ পত্রিকার” উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ দিনাজপুর জেলা মিশুক বেবীট্যাক্সি এলপিজি থ্রী হুইলার এর নব-নির্বাচিত কমিটির সংবর্ধনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পন্ন দিনাজপুরে সাবেক শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে গঠিত সংগঠন “বাস্তবায়ন”এর শীতবস্ত্র বিতরণ

কোটি ফুটবলপ্রেমীকে শোকের সাগরে ভাসিয়ে পরপারে চলে গেলেন ম্যারাডোনা

  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০
  • ৫০ বার পঠিত

বজ্রকথা ডেক্স।- সর্বকালের সেরা ফুটবলার দিয়াগো আরমান্দো ম্যারাডোনা বিশ্বের লক্ষ কোটি ফুটবলপ্রেমীকে শোকের সাগরে ভাসিয়ে গত ২৫ নভেম্বর মারা গেছেন। এএফপি জানিয়েছে, আর্জেন্টিনার ছোট্ট শহর তিগ্রেতে নিজ বাড়িতে হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন ৬০ বছর বয়স্ক ফুটবল জাদুকর ম্যারাডোনা । জানা যায় কিছু দিন আগে অসুস্থ হয়ে আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েনস এইরেসের একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ম্যারাডোনা । চলতি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে তাঁর মস্তিষ্কে সফল অস্ত্রোপচার করে রক্ত অপসারণ করা হয়। অস্ত্রোপচারের ৮ দিন পর হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল তাঁকে। তিনি নিজ বাড়িতে ফিরে গিয়েছিলেন । সেখানেই মারা যান ম্যারাডোনা।
ম্যারাডোনার জন্ম ১৯৬০ সালের ৩০ অক্টোবর বুয়েনস এইরেস প্রদেশের লানুস শহরে। পেলে, না ম্যারাডোনা- কে বিশ্বসেরা ফুটবলার ? এ নিয়ে ফুটবল বিশ্ব বিভক্ত। ফিফা এই জটিল সমস্যার সমাধান করে দেয়। ১৯৮০ সালের আগ পর্যন্ত পেলেকে এবং ১৯৯০ সালের পরবর্তী সময়ে সর্বকালের সেরা ফুটবলার হিসেবে ম্যারাডোনাকে স্বীকৃতি দেয়। দুজনই বিশ্বকাপজয়ী ফুটবলার। ম্যারাডোনা ১৯৭৭ সালে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে সুযোগ পান। কিন্তু বয়স কম হওয়ায় ১৯৭৮ সালে ঘরের মাঠে বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ পাননি। ড্যানিয়েল পাসারেলার নেতৃত্বে সেবার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছিল আর্জেন্টিনা। ’৭৮ সালে সুযোগ না পেলেও ম্যারাডোনা আর্জেন্টিনার আকাশী-সাদা জার্সি গায়ে ১৯৮২, ১৯৮৬, ১৯৯০ ও ১৯৯৪ সালে চারটি বিশ্বকাপ খেলেন। ’৮২ সালে স্পেন বিশ্বকাপে অভিষেক। ২২ বছর বয়সেই সব ফোকাস টেনে নিয়েছিলেন নিজের দিকে। কিন্তু গ্রুপ পর্ব টপকাতে পারেনি আর্জেন্টিনা। ১৯৮৬ সালে মেক্সিকো বিশ্বকাপে ফুটবল বিশ্ব দেখে নতুন এক ফুটবল জাদুকরকে। অমর হয়ে যান ওই আসরে। তাঁর ফুটবল জাদুতে আর্জেন্টিনা দ্বিতীয়বারের মতো বিশ্বকাপ জয় করে। শুধু বিশ্বচ্যাম্পিয়নই নয়, পাঁচটি গোল করেছিলেন তিনি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তাঁর দুটি গোল তাঁকে ইতিহাসের সোনালি পাতায় আলাদা স্থান দিয়েছে। যার একটি গোল ছিল বিতর্কিত।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com