রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৬:৪১ অপরাহ্ন

পীরগঞ্জে আমনের বাম্পার ফলন কৃষকের মুখে হাসি

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ১০ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৪০ বার পঠিত
ছবিটি ঠাকুরগাঁয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার জাবহাট ইউনিয়ন থেকে তোলা।

আবু তারেক বাঁধন, পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি।-  ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ উপজেলায় পুরোদমে ক্ষেত থেকে আমন ধান সংগ্রহ করা শুরু হয়েছে। ভালো দাম আর বাম্পার ফলন দেখে হাসি ফুটেছে এ উপজেলার কৃষকের মুখে। গত বছর যে ধান ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা মণ দরে বিক্রি হয়েছিল বাজারে, চলতি মৌসুমে হাজার টাকারও বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে । একর প্রতি ৪৫ থেকে ৫০ মণ পর্যন্ত ধানের ফলন হয়েছে এবার। দেশের সর্ব উত্তরের কৃষি সমৃদ্ধ এই উপজেলায় আবাদি জমি অপেক্ষাকৃত উঁচু হলেও ধান চাষে বেশ উপযোগী। পর্যাপ্ত বৃষ্টিপাত ও রোগবালাই কম হওয়ায় এ বছর ধানের বাম্পার ফলন পেয়ে কৃষকরা মহাখুশি। অনেকেই আগাম জাতেরও ধান চাষ করেছেন। ইতোমধ্যে তারা ধান সংগ্রহ করে ভালো দামে ধান ও খড় (কাড়ি) বিক্রি করছেন। ধানের লভ্যাংশে একই জমিতে সবজি চাষেরও প্রস্তুতি নিচ্ছেন কৃষকরা। পীরগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের ভেলাতৈড় গ্রামের কৃষক ইয়াসিন আলী জানান, তিনি এবার আমন মৌসুমে ৩ বিগা মাটিতে ধান চাষ করেছেন। ফলন আর বাজার দামে বেজায় খুশি তিনি। সেই জমিতে এখন গম,আলু ও ভুট্ট্রা চাষের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। উপজেলার জাবহাট ইউনিয়নের কৃষক হুমায়ুন জানায়, এবার তিনি আগাম স্বর্ণ জাতের ধান আড়াই বিঘা জমিতে চাষ করেছেন, বিঘা প্রতি ফলন পেয়েছেন ১৬ মন করে। ধান কাটার পর তিনি একই জমিতে আলু লাগিয়েছেন।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্র জানায়, চলতি মৌসুমে উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভায় মোট ৩১ ব্লকে এবার ২৪ হাজার ৭৫০ হেক্টর জমিতে রোপা আমন ধান চাষ করা হয়। এর মধ্যে স্বর্ণা-৫, রনজিত, পায়জাম, হাইব্রিড, ব্রি-ধান-১১, ৯০, ৬২সহ বেশ কয়েকটি জাতের আমন ধান রোপণ করা হয়েছে। জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে অর্থাৎ মধ্য আষাঢ়ে লাগানো হয় এই ধান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com