বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০২:৪৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
রংপুর বিভাগের নব নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান- ভাইস চেয়ারম্যানের শপথগ্রহণ রংপুর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন প্রার্থী আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা মর্যাদার লড়াই জাতীয় পার্টির বিরামপুর পুলিশ বক্স ও বিট পুলিশিং কার্যালয়ের উদ্বোধন নদীর ভাঙন প্রতিরোধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি রাস্তা পাকাকরণ কাজে ব্যাপক অনিয়ম  দেখার কেউ নেই “স্বাধীনতা সুবর্ণ জয়ন্তী পুরস্কার ২০২৩” পেল প্রাইম ব্যাংক ইনভেস্টমেন্ট রংপুরে যুবদল নেতা নয়নের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত রংপুর নগরীতে  বাড়িতে হামলা সরকারি জমি থেকে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ  বিরামপুরে প্রাথমিক শিক্ষা সপ্তাহে মা দিবস অনুষ্ঠিত

পীরগঞ্জে প্রতি শুক্রবার ৫শ মানুষের মুখে খাবার তুলে দিচ্ছে তারা

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ১৬৩ বার পঠিত

সুলতান আহমেদ সোনা।- রংপুর জেলার পীরগঞ্জে প্রতি শুক্রবার ৫০০ মানুষের মুখে মাংস ভাত তুলেচ্ছেন কিছু উদ্যমী যুবক।

তারা  কোন দলের লোক নন। কোন রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে তারা এই কাজটি করছেন না! তারা মানবিক কারণে এই এলাকার  ভিক্ষুক, গরিব-মিসকিন, প্রতিবন্ধি, মধ্যবৃত্ত, রিকসা চালক, বয়সের ভাড়ে  চলতে অক্ষম মানুষদের কথা ভেবে, প্রতি শুক্রবার উপজেলার পীরগঞ্জ আদর্শ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় চত্বরে  রান্না করা খাবার পরিবেশন করছেন।

খাবার হিসেবে থাকছে কোনদিন ডাল,মাংস ভাত, কোনদিন ভুনা খিচুরী মাংস। নি:সন্দেহে পীরগঞ্জের যুবকদের এটি মহৎ উদ্যোগ।

এই ভালো কাজটি যারা করছেন, তারা হলেন,  উদ্যক্তা  শ্যামল সরদার,  উদ্যমী যুবক রওশন মন্ডল, আবু তালেব, রাকিব মন্ডল, জাকির হোসেন, মনছুর মিয়া, রায়হান মিয়া,  আমিন শরীফ কাজল, চাঁন মিয়া, শোয়াইব আকন্দ, মাহমুদুর রহমান ডলার, মনীর উদ্দিন মন্ডল, সুমন মন্ডল, মামুন মন্ডল, রুফিক আলম, নাফিউল ইসলামসহ নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই।

যাদের নাম বলা হলো, তারা নিজ উদ্যোগে, প্রতি সপ্তাহে, চাউল , ডাল, মাংস, তেল,লবন হাওয়াজ পিঁয়াজ  মসলাপতির যোগান দিচ্ছেন। শ্যামল সরদার জানিয়েছেন,   এই কাজে  অনেকেই আমাদের উৎসাহ দিচ্ছেন, সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন।

শ্যামল সরদার আরো জানান, আমরা শুধু  খবারই সরবরাহ করছি না, খাবারের  মানও রক্ষা করছি। তিনি কয়েকজন কে দেখিয়ে বলেন, এই যে রফিকুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম,রঞ্জু মিয়া তারা খেটে খাওয়া মানুষ! তারা প্রতি শুক্রবার অন্যকাজে না গিয়ে মহৎ কাজে যুক্ত হয়েছেন িএবং রান্নার ভার কাঁধে তুলে নিয়েছেন।

প্রশ্ন করেছিলাম, কেউ যদি  আপনাদেরকে সাহায্য বা সহযোগীতা করতে চায় , সেটা নেবেন কি না ?

এমন প্রশ্নের জবাবে উদ্যক্তারা জানিয়েছেন ,যে কেউ  যুক্ত হতে পারেন তাদের সাথে, যে কারো সহযোগীতা ধন্যবাদের সাথে গ্রহন করবেন তারা।

শ্যামল সরদার বলেছেন, কেউ চাইলে সরাসরি এসে সহযোগিতার হাত প্রসারিত করতে পারেন; আবার চাইলে আমাদের এই দুটি বিকাশ  নম্বর -০১৭৭৪-৯৪১০৫৫ অথবা ০১৭৫০-৪৫২০৯৪ এই  নম্বরেও  সহযোগীতা পাঠাতে পারেন।

উদ্যক্তরা আরো জানিয়েছেন,এখন পর্যন্ত ৮টি শক্রবার ধরে তারা আগত লোকজনদেরকে  খাওয়াচ্ছেন, প্রতি শুক্রবারেই  অতিথিদের সংখ্যাটা বাড়চ্ছে, তাতে আয়োজকদের কোন সমস্যা হচ্ছে না।

শুনে ভালো লেগেছে যুবকদের কথা । আমরা চাইবো, এই সব উদ্যমী যুবকদের পাশে সবাই দাড়াবেন। উৎসাহিত করবেন, সহযোগীতার হাত প্রসারিত করবেন!

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com