শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ০৮:৪৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
চিলমারী কল্যাণ সমিতির কমিটি গঠন পীরগঞ্জে পাটচাষীদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত   দিনাজপুর শিশু একাডেমীর চিত্রাংকনসহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে নেসকো গ্রাহকদের নিয়েপিএলসির নেসকোর  গণশুনানী ফুলবাড়ী শিবনগর ইউনিয়নে বয়স্ক ও বিধবা ভাতার কার্ড এর লটারি অনুষ্ঠিত  পলাশবাড়ীতে দুই বাইকের সংঘর্ষে আহত স্বদেশ এর মৃত্যু এসএসসি পরীক্ষায় মোবাইলে  প্রশ্নপত্র ফাঁস এক শিক্ষকের কারাদন্ড রংপুরে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদের ৩৬ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন “শেকড় ” এর সহয়োগীতায় বর্ণমালায় রোদ্দুর কবিতা পাঠের আসর বাংলাদেশ প্রেসক্লাব পীরগঞ্জ শাখার সম্মেলন ও কমিটি গঠন

ফতুল্লার ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ ৩৭ পরিবারকে ৫ লাখ টাকা করে দিতে বলেছে হাইকোর্ট

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৩৯০ বার পঠিত

বজ্রকথা ডেক্স।- নারায়ণগঞ্জ শহরের পশ্চিম ফতুল্লা এলাকার বায়তুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণে ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ ৩৭ পরিবারের প্রত্যেকে জরুরি প্রয়োজন হিসেবে পাঁচ লাখ টাকা করে সাত দিনের মধ্যে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষকে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট।

নারায়ণগঞ্জের জেলা প্রশাসককে এসব টাকা ভুক্তভোগী ৩৭ পরিবারের মধ্যে বিতরণ করতে বলা হয়েছে। গত ৯ সেপ্টেম্বর বিচারপতি  জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাই কোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেয়। আদেশের সঙ্গে ওই ঘটনায় ভুক্তভোগী ৩৭ পরিবারকে ৫০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিতে বিবাদীদের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুলও জারি করেছে আদালত। এর আগে মসজিদে বিস্ফোরণে নিহত ও দগ্ধ ব্যক্তিদের প্রত্যেককে ৫০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দিতে নির্দেশনা চেয়ে নারায়ণগঞ্জের বাসিন্দা ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য আইনজীবী মার-ই-য়াম খন্দকার গত সোমবার ওই রিটটি করেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী তৈমূর আলম খন্দকার। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নূর উস সাদিক।

পরে অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা সাংবাদিকদের বলেন, হাই কোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করা হবে। কেননা ঘটনা তদন্তে একাধিক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির রিপোর্ট এখনো আসেনি। কে দায়ী তা নিরূপণ হয়নি। এসব বিবেচনায় আপিল বিভাগে আবেদন করা হবে।

এদিকে বিস্ফোরণে দগ্ধ আটজনের অবস্থার এখনো কোনো উন্নতি হয়নি। সবাই শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ইনস্টিটিউটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন বার্ন ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন। এদিকে ৯ সেপ্টেম্বর সকালে ডা. সামন্ত লাল সেন সাংবাদিকদের বলেন, চিকিৎসাধীন সবারই যেহেতু শ্বাসনালি পুড়ে গেছে, তাই কার কত শতাংশ পুড়েছে সেটা ততটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। শ্বাসনালি পোড়া কেউই শঙ্কামুক্ত থাকেন না। বিস্ফোরণের ঘটনায় এখন পর্যন্ত দগ্ধ ৩৭ জনের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৮ জনই মারা গেছেন। আর একজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বাকি আটজনের চিকিৎসা চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com