বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:৪৫ অপরাহ্ন

বদরগঞ্জের গভীর নলকুপের পাইপ ভেঙ্গে ফেলায় থানায় অভিযোগ

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৪৫ বার পঠিত

রংপুর প্রতিনিধি।-রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার পল্লীতে চাষাবাদকৃত কৃষি জমিতে পানি সেচ কাজে ব্যবহৃত গভীর নলকুপের প্লাস্টিকের পাইপ ভেঙ্গে ফেলাসহ বাধা দানের ঘটনা ঘটেছে। এতে মেরামত করতে গিয়ে আশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ ও হুমকি প্রর্দশনের শিকার হয়েছেন ভুক্তভোগী। ওই কৃষক নিরুপায় হয়ে বদরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের ফকিরপাড়া গ্রামের মাটিয়ালের পাথারে এঘটনাটি ঘটেছে।
লিখিত অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের ফকিরপাড়া গ্রামের মাটিয়ালের পাথারে চাষযোগ্য বিস্তৃত এলাকায় ইরিসহ বিভিন্ন মৌসুমে কৃষি জমি চাষাবাদের জন্য স্থানীয় ফকিরপাড়া সমবায় সমিতি গত ১৬-০৪-২০১৪ সালে পল্লী উন্নয়ন একাডেমী (আরডিএ) বগুড়া কর্তৃক একটি গভীর নলকুপ স্থাপন করা হয়। এর পর থেকে স্থানীয় ফজলুল হকের ছেলে মনজুরুল হাসান নলকুপটি পরিচালনা করে আসছে। বিগত ২০২২ সালে স্থানীয় তাজগুল ইসলাম, জুলফিকার আলী ভুট্টু, সনেটসহ একটি কুচক্রী মহল প্রতিহিংসাবসত রাতে আধারে গভীর নলকুপটির প্লাস্টিকের পাইপ মাটি খুড়ে ভেঙ্গে দেয়। পরবর্তীতে বিষয়টি পল্লী উন্নয়ন একাডেমী (আরডিএ) বগুড়া কর্তৃপক্ষকে জানালে একটি প্রতিনিধি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। এর পরেই বদরগঞ্জ উপজেলা সেচ কমিটির কার্যকরি পদক্ষেপ ও আলোচনার মাধ্যমে সমাধান হয়। কিন্তুু বর্তমানে ইরি-বোরো সেচ মৌসুম চলাকালে গত ১ জানুয়ারি রাতের আধারে পূর্বের ন্যায় গভীর নলকুপের প্লাস্টিকের পাইপ ভেঙ্গে ফেলে। এ ঘটনাটি পল্লী উন্নয়ন একাডেমী (আরডিএ) বগুড়া কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়। এর পরেই ভুক্তভোগী ওই গভীর নলকুপের দায়িত্বপ্রাপ্ত মনজুরুল হাসান জমিতে গিয়ে ভেঙ্গে ফেলা পাইপের অংশ মেরামত করতে গেলে বাধা প্রদান করে স্থানীয় তাজগুল ইসলাম, জুলফিকার আলী ভুট্টু, সনেটসহ একটি কুচক্রী মহল। এসময় তারা তাকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালজ ও বিভিন্ন প্রকার হুমকি প্রর্দশন করে। এঘটনায় তিনি বদরগঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। এর পর থেকে ভুক্তভোগী ও তার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনায় ভুগছেন। ভুক্তভোগী ও স্থানীয় এলাকাবাসী ঘটনাটির তদন্তসহ জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পুলিশ প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি দাবি জানিয়েছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com