1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
বুধবার, ১৬ জুন ২০২১, ০১:০১ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
 বারটান পীরগঞ্জ কার্যালয়ে ফলিত পুষ্টি বিষয়ক প্রশিক্ষণ চলছে পানিবাহিত রোগে বছরে সাড়ে ৮ লাখ মানুষের অকাল মৃত্যু নবাবগঞ্জে নদীতে গোসল করতে দুই সহোদর শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু বার ভূঁইয়াখ্যাত ঈশা খাঁর বীরত্বপূর্ণ ইতিহাসের পাকুন্দিয়ার বেবুদ রাজার দীঘি আজো এক রহস্যের নাম কটিয়াদীতে গ্রীষ্মকালীন সবজি চাষে কৃষকদের সাফল্য  নবাবগঞ্জে সাধারণের মাঝে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কোন বালাই নাই পার্বতীপুুরে আন্তঃনগর ট্রেনে হিজড়া ও হকার উচ্ছেদ অভিযান পার্বতীপুরে বসত-ভিটা দখলের চেষ্টা : এক মুুক্তিযোদ্ধা চরম হয়রানির শিকার বগুড়ায় ১৫ কেজি গাঁজাসহ মোটরসাইকেল উদ্ধার শেরপুরে আলাল গ্রুপের কব্জায়  টাকার সরকারি  সম্পত্তি : বেদখল দিতে অবকাঠামো নির্মাণ

মিঠাপুকুরে ১১দিন ধরে অবরুদ্ধ ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠি পরিবার

  • আপডেট সময় : সোমবার, ১০ মে, ২০২১
  • ১৩ বার পঠিত

জেলা প্রতিনিধি।- রংপুরের মিঠাপুকুরের লতিবপুরের হাতিমপুরে প্রতিবেশী কর্তৃক দীর্ঘদিনের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে প্রাচীর নির্মাণ করায় গত ১১ দিন ধরে অবরুদ্ধ জীবন যাপন করছে একটি ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠি পরিবার। বিষয়টি জানিয়ে তিনি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভূমি অফিসে লিখিত আবেদন করেও মেলেনি সুরাহা। ফলে অসহায় বন্দি অবস্থায় দুর্বিসহ জীবন যাপন করছেন পরিবারের ৪ সদস্য। মিঠাপুকুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে দেয়া লিখিত অভিযোগ এবং সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, উপজেলার লতিবপুর ইউনিয়নের হাতিমপুর গ্রামে বংশপরস্পরায় সুদীর্ঘ শত বছর ধরে বসবাস করে আসছেন মৃত সুখদেব রবিদাশের পুত্র রামদেব রবিদাশ। তার বাড়ী থেকে রেকর্ডিয় রাস্তায় ওঠার জন্য পাশের বাড়ির বিদেশী হারাধন রবিদাশ নামের এক ব্যক্তির সাথে সমঝোতার ভিত্তিতেই বংশ পরস্পরায় থাকা একটি রাস্তা দিয়েই যাতায়াত করছিলেন দুই পরিবার। গত ২৯ এপ্রিল বিদেশী হারাধন হঠাৎ ওই রাস্তার ওপর প্রাচীর নির্মান শুরু করে। বিষয়টি জানিয়ে সাথে সাথেই রামদেব উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত আবেদন করেন। আবেদন পাওয়ার পরপরই উপজেলা সহকমিশনার (ভূমি) নুরে আলম সিদ্দিকী রানা ও ইউনিয়ন ভূমি অফিসার মোজাহিদ হুসাইন সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে কাজ বন্ধ কওে দেন। কিন্তু তারা চলে আসার পর ওই দিনই স্থানীয় কয়েকজন প্রভাবশালীর ছত্রছায়ায় সরকারি নির্দেশ অমান্য করে পুরো প্রাচীর নির্মাণ করে হারাধান। একারণে গত ১১ দিন থেকে পরিবার পরিজন নিয়ে অবরুদ্ধ জীবন যাপন করছে রামদেব। বিকল্প কোন রাস্তা সুযোগ না থাকায় তারা বন্দি জীবন যাপন করছেন। এ ব্যপারে রামদেব জানান, বংশপরস্পরায় একশ বছর থেকে দানকৃত সম্পত্তি (দাগ-নং ১৭৪) এর মধ্যে আমি এবং বিদেশী হারাধনের পরিবার বসবাস করে আসছি। এবং আমাদের দুই পরিবারের সীমানার মাঝ দিয়ে থাকা রাস্তার মাধ্যমে আমরা যাতায়াত করে আসছি। কিন্তু হঠাৎ করেই হারাধন চলাচলের রাস্তায় প্রাচীর নির্মান করায় আমি পরিবার পরিজন নিয়ে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছি। সাথে সাথে বিষয়টি আমি লিখিত ভাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানালে তিনি দুইজন অফিসার পাঠান। তারা কাজ বন্ধ করে দেয়ার কথা বলে চলে যাওয়ার পর হারাধন পুরো প্রাচীর নির্মাণ করেন রাস্তা বন্ধ করে দেন। এখন আমি আমার স্ত্রী ও দুই সন্তানকে নিয়ে দীর্ঘ ১১ দিন থেকে বন্দি হয়ে আছি। কোথাও বের হতে পারছি না। প্রশাসনের পক্ষ থেকেও কোন উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে না। চলাচলের রাস্তা দেয়া না হলে আমাকে পরিবার পরিজন নিয়ে বন্দি অবস্থাতেই মরে যেতে হবে। এ ব্যপারে অভিযুক্ত বিদেশী হারাধন বলেন, ক্রয় সূত্রে আমি ওই জমির মালিক। সেকারণে আমি প্রাচীর নির্মান করে রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছি। তবে এ ব্যপারে লতিফপুর ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা মোজাহিদ হোসাইন জানান, যে জমির চলাচলের রাস্তায় বিদেশী হারাধন প্রাচীর নির্মান করেছেন সেটি তার ক্রয়কৃত জমি নয়। তার ক্রয়কৃত জমির দাগ নম্বর ১৪৯। আর উনি যে জায়গায় প্রাচীর দিয়েছেন সেই জমির দাগ ১৭৪। তদন্ত সম্পন্ন করেছি। এখন তা রেডি করা হচ্ছে। যে কোন সময়েই তা যথাযথ কর্তৃপক্ষের হাতে দেয়া হবে। লকডাউনের কারণে কিছুটা বিলম্ব হচ্ছে। তবে অমানবিকভাবে ওই রামদেবের চলাচলের রাস্তায় প্রাচীর নির্মান করে তাকে অবরুদ্ধ রাখা হয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।  এ ব্যপারে মিঠাপুকুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নুরে আলম সিদ্দিকী রানা জানান, আমার হাতে এখনও তদন্ত প্রতিবেদন আসে নি। আসা মাত্রই ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com