শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন

রংপুরে জুয়েলের গায়েবানা জানাজা সুষ্ঠু তদন্তসহ জড়িতদের বিচার দাবি

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১ নভেম্বর, ২০২০
  • ৭৯ বার পঠিত

রংপুর প্রতিনিধি।- লালমনিরহাটের বুড়িমারীতে নির্মম হত্যার শিকার রংপুর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের সাবেক লাইব্রেরিয়ান আবু ইউনুছ মো. সহিদুন্নবী জুয়েলের গায়েবানা জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। জানাজা শেষে মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত ও শান্তি কামনায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়।
আজ শনিবার দুপুরে রংপুর জিলা স্কুল মাঠে এ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, বিএনপি, ছাত্রদল, কৃষক দলসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, স্বেচ্ছাসেবী ও মানবাধিকার বিষয়ক সংগঠনের নেতৃবৃদ ও জিলা স্কুলের প্রাক্তন এবং বর্তমান শিক্ষার্থী-শিক্ষকরাসহ তার আত্মীয়-স্বজনরা অংশ নেন। জানাজা শুরুর পূর্বে নিহত সহিদুন্নবী জুয়েলের ভাই, সহকর্মী ও বন্ধুরা নারকীয় এই হত্যাকান্ডের নিন্দা জানিয়ে বক্তব্য রাখেন।
এর আগে সকালে প্রতিবাদী মানববন্ধন থেকে জুয়েল হত্যাকান্ডের সুষ্ঠু তদন্ত, জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়। এই কর্মসূচি জিলা স্কুল মোড়ে প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের ব্যানারে অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে রংপুর জিলা স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র রাশেদ রাব্বানী জুয়েল, সাংবাদিক আরিফুল হক রুজু, এ.এস.এম সায়েম সাকলায়েন, ডাঃ তানভীর সিদ্দিকী, অনিক রেজা, আসিক আলী, সূব্রত চন্দ্র দেবনাথ, খন্দকার মারুফ এলাহী, গোলাম রব্বানী, এ্যাড. মেরাজুল ইসলাম লিটন, জাভেদ হোসেন জুয়েল, মাহামুদু রনবী ডলার, সুব্রত সরকার মুকুল, এ্যাপলো চৌধুরী, নিহত জুয়েলের চাচাতো ভাই আমিনুল ইসলাম। উক্ত মানববন্ধনে একাত্মতা প্রকাশ করে উপস্থিত ছিলেন রংপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি সাফিয়ার রহমান শফি, সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল, বাসদ নেতা আব্দুল কুদ্দুছ, সমাজকর্মী জোবায়দুল ইসলাম বুলেটসহ সহিদুন্নবী জুয়েলের বন্ধু, সহকর্মীসহ স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ বক্তব্য রাখেন।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, মানুষ এভাবে কাউকে পিটিয়ে হত্যার করার পর পুড়িয়ে ফেলতে পারে তা মর্মান্তিক। এখন পর্যন্ত প্রশাসনের পক্ষ থেকে তেমন কোনো কার্যক্রম দেখা যাচ্ছে না। দ্রুত এই নারকীয়, নিন্দনীয় ও ন্যক্কারজনক ঘটনার সাথে জড়িতদের শনাক্ত করে বিচারের আওতায় নিয়ে আসা হোক।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com