মঙ্গলবার, ০৯ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৫৪ পূর্বাহ্ন

রংপুরে পায়ুপথে দেয়া বাতাসে অসুস্থ শ্রমিকের মৃত্যু: থানায় মামলা

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০
  • ৯১ বার পঠিত

রংপুর প্রতিনিধি।- রংপুর নগরীতে পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে দেয়ার ঘটনায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। নিহতের নাম মহির উদ্দিন (৬০)। তার বাড়ি নগরীর ৩২ নং ওয়ার্ডের বড় রংপুর কাইদাহারা গ্রামে। তিনি মাহিগঞ্জ এলাকার দেওয়ানটুলি জমজম ফিড মিলের শ্রমিক ছিলেন। আজ শুক্রবার সকালে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই বৃদ্ধের মৃত্যু হয়।
এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী আলেয়া বেগম তিনজনকে আসামি করে একটি হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করেছেন। এসব তথ্য নিশ্চিত করেন আরপিএমপি’র মাহিগঞ্জ থানার ওসি শেখ রোকনুজ্জামান।
এরআগে গত মঙ্গলবার বিকেলে নগরীর মাহিগঞ্জ দেওয়ানটুলি এলাকার জমজম ফিড মিলের শ্রমিক রশিদুল ইসলাম, জহিরুলসহ কয়েকজন শ্রমিক জোরপূর্বক মেশিনের বাতাস বের হওয়া ভ্যাকম পাইপ মহির উদ্দিনের পায়ুপথে ঢুকিয়ে দেন বলে অভিযোগ উঠে। ওই ঘটনায় বৃদ্ধ শ্রমিকের পেট ফুলেগেলে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। অবস্থা বেগতিক দেখে অভিযুক্তরা পালিয়ে যায়। পরে মিলের অন্যান্য শ্রমিকদের সহায়তায় মহির উদ্দিনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে তিন দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর শুক্রবার সকালে তিনি মারা যান। এদিকে ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত শ্রমিক রশিদুল ইসলাম, জহিরুল ইসলাম বাবু এবং আরেক শ্রমিক জহুরুল ইসলাম পলাতক রয়েছেন বলে জানা গেছে। উক্ত ঘটনায় গত বৃহস্পতিবার মাহিগঞ্জ থানায় একটি হত্যাচেষ্টা মামলা দায়ের করে মহির উদ্দিনের স্ত্রী আলেয়া বেগম। ওই মামলায় তিন জনকে আসামী করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে মামলার বাদী আলেয়া বেগম জানান, অভিযুক্তরা পরিকল্পিতভাবে তার স্বামীকে হত্যার উদ্দেশ্যে পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে এই কান্ড ঘটিয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তিনি।
এদিকে চিকিৎসারত অবস্থায় অসুস্থ শ্রমিক মহির উদ্দিনের মৃত্যুর বিষয়টি জানাজানি হলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে মাহিগঞ্জ থানা পুলিশ।
আরপিএমপির মাহিগঞ্জ থানার ওসি শেখ রোকনুজ্জামান জানান, জমজম ফিড মিলের এক শ্রমিকের পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে দেয়ার ঘটনায় অসুস্থ মহির উদ্দিন নামে ওই মিল শ্রমিকের রংপুর হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে। নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত কোনো আসামিকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com