1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭:৩৯ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
নবাবগঞ্জে ৪৫০ পরিবারকে জমি ও গৃহ প্রদান বিরামপুরের গৃহহীনরা পেল শেখ হাসিনার উপহার জমি ও ঘর জাহাঙ্গীরাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ে ব্যতিক্রমধর্মী অনলাইন শ্রেণি কার্যক্রম ফুলবাড়ী উপজেলার সীমান্ত এলাকায় করোনা ভাইরাস রোধে কাজ করে চলেছে বিজিবি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিনাজপুরে উদ্বোধন করলেন ২ হাজার ৫১৫টি গৃহ পার্বতীপুরে প্রধানমন্ত্রী’র ঘর পেলো আরও ১০০ পরিবার বগুড়ার শেরপুরে মসজিদে তালা লাগিয়ে জমি দখল মুসুল্লীদের নামাজ আদায় বন্ধ ঘোড়াঘাটে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলেন ৫০০ পরিবার  সাপাহারে গৃহহীন ৬০টি পরিবার পেল প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে জমি ও বাড়ি  ৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ দুই নারী আটক

রংপুর নগরীতে পূজা উদযাপন পরিষদের দুই গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতি

  • আপডেট সময় : রবিবার, ৩০ আগস্ট, ২০২০
  • ৩৪ বার পঠিত

রংপুর প্রতিবেদক।- রংপুর মহানগরীতে একই স্থানে অনুষ্ঠান করা ও কমিটির বৈধতা নিয়ে রংপুর মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের দুই গ্রুপের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটনা ঘটেছে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। তবে এঘটনার জন্য পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে। দুই গ্রুপের নেতারা নিজের কমিটিকেই বৈধ দাবি করেন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পরিষদের নেতৃবৃন্দ জানান, শনিবার সকালে নগরীর সেন্ট্রাল রোডস্থ ক্ষত্রিয় সমিতি মাঠে জাতীয় পর্যায়ে অংশ গ্রহণের জন্য মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের আহবায়ক কমিটি উলুধনি ও শঙ্খধনি প্রতিযোগিতার বাছাই পর্বের আয়োজন করে। অনুষ্ঠান চলাকালীন মহানগর কমিটির সাবেক সভাপতি সুব্রত সরকার মুকুল ও সাধারণ সম্পাদক ধনজিৎ ঘোষ তাপসের নেতৃত্বে বেশকিছু লোকজন এসে অনুষ্ঠানে বাধা প্রদান করে। এনিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে মধ্যে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এসময় দুই গ্রুপেই নিজেদের বৈধ বলে দাবি করেন।
মহানগর পুজা উদ্যাপন কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ধনজিৎ ঘোষ তাপস বলেন, আমরা বৈধ কমিটিতে রয়েছি। আমাদের না জানিয়ে অনুষ্ঠান করছিল। এর প্রতিবাদ করলে ওই পক্ষ আমাদের ওপর চড়াও হয়। এতে আমাদের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে।
এদিকে অপর কমিটির আহবায়ক এ্যাডভোকেট প্রশান্ত কুমার রায় বলেন, মহানগর কমিটির মেয়াদ শেষ হওয়ায় কেন্দ্রীয় কমিটি আহবায়ক কমিটি গঠন করে দেয়। কেন্দ্রীয় নির্দেশনা অনুয়ায়ী আমরা অনুষ্ঠানের আয়োজন করি। কিন্তু মুকুল-তাপসের লোকজন এসে আমাদের অনুষ্ঠানে বাধা প্রদান করে। পুলিশ এসে তাদের নিবৃত করলে আমরা অনুষ্ঠান শেষ করি।
এদিকে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্যসহ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কিন্তু দুই গ্রুপের হাতাহাতির কারণে কোন অতিথি অনুষ্ঠানে আসেননি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com