1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০৯:১১ পূর্বাহ্ন

স্বরূপতত্ত্ব : পর্ব ৪

  • আপডেট সময় : শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০২০
  • ১০২ বার পঠিত

-কামরুজ্জামান শিমুল

(পূর্ব প্রকাশের পর)

একটা আদর্শ নিয়ে চলে। মা, মাটি আর মাতৃভূমি যেমনটা মাতৃভাষাকে আগলে রাখে ভালো তেমন আদর দিয়ে আপনসত্ত্বাকে প্রেমময় করে তোলে। জগতে সময়ের ধারাবাহিক নিয়মে একটি বৃত্তাকার পথে সকলে এগিয়ে চলে। দ্বিধা আছে ভারসাম্যের জন্য। মন্দ তার বিপরীত নয়। তাই বলে তুলনার সাঁকোতে অভিযোজন বাড়াবাড়ি রকমের হলে সভ্যতার আত্মহত্যা করা ছাড়া উপায় থাকে না। অঝোর ধারায় আকাশ যখন কান্না ঝরায় সবাই কি তাতে উপকৃত হয়। তাই বলে তো তাকে অস্বীকার করা যায়না। সে ঠিকই আছে তাকে বরং বিকৃত করার অপচেষ্টা চলে। তবুও  সে দিয়ে যায় সম্প্রদান হয়ে। নিয়ন্ত্রণ বা সাধনা বোঝার বিষয়। মুক্তি পাওয়ার একমাত্র উপায়। পাখি ডাকছে প্রভাত হচ্ছে গোধুলী শেষ হয়ে গভীর গাঢ়তা গ্রাস করছে এটা বাস্তুসংস্থানের প্রাত্যহিক নিয়ম। সাধনার অংশ তারা সকলেই। যেখানে দেখা যায় শাস্তিযোগ্য অপরাধীরাই সরল আর জটিলের বিভেদ গড়ে তোলে যারা আদৌ নিয়ন্ত্রণের ধার ধারে না। অপ্রয়োজন কে প্রয়োজনীয় করে তোলে। স্বরূপ বলছিল দেখ বিমরনের পূর্ব পর্যন্ত অধিকাংশ মানুষ নিজেকেই জানতে পারেননা। ফলাফল স্বরূপ অন্যের জন্য ক্ষতিকর হয়ে ওঠেন তারা। অথর্ব মনুষ্যত্ব শকুনের মতো খুঁজে বেড়ায় প্যারালাইজড দুর্বলতার মগডাল অথবা বিপন্ন প্রজাতির মতো ভীত হয়ে পালিয়ে যায় আমাদের অবহেলায়। তাই ভালো শব্দটির সার্থকতা আর থাকেনা। যুগে যুগে এভাবেই বুঝেও অবুঝ সময়ের দর্পণ অনেকাংশে সজাগ চোখেও চলে না বাহন। মোদ্দাকথা চর্মরোগের ওষুধ কি আর মনের রোগ সারায়
তবে চর্মরোগে রপ্রাদুর্ভাব মনের অসুখ বাড়ায়। ভালো আর মন্দ শুধুই বিবেক নির্মান করে। তোর মন ভালো নেই এটাও তোর বিবেকের খাম খেয়ালি। তোর অবচেতন মন চাইছেই না তুই ভালো থাকিস। এটাই তোর মন্দ। আমি স্বরূপের কথা গভীরভাবে ভাবছিলাম। মনের কারিগরকে এ প্রশ্নের জবাবে স্বরূপ আমায় বলল পিছুটানই একমাত্র প্রভাবক যা হৃদয়কে বদলে দেয়। অনিচ্ছাকৃত হলেও নিষ্ঠুরের মতো পিছুটান থেকে মুক্তি পেলে ভালোবাসার মহত্ত্ব পূর্ণাঙ্গতা পায়। ভালো, ভালোথাকা আর মন্দ মনোভাব একটা গাঁথা মালার মতো। তোর আত্মা কখনোই তৃপ্ত হবেনা তার অতৃপ্তি এক জাতীয় ব্যামোর মতো। পথ্য দিয়েই ওটা ঘোচাতে হয় নতুবা ক্রমিক নিয়মে তা বাড়তেই থাকে আর সকল প্রাণের জন্য ক্ষতির কারণ হয়। আর সেই পথ্য সবার জন্য একও অভিন্ন। সাধনাই একমাত্র পথ্য যা সবকিছুর ঊর্ধ্বে বাস করে। অন্ধকারে আলো জ্বালে, প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় উষ্ণতা দেয়। নিজেকে প্রশ্ন করে তার উত্তর খোঁজার দায়িত্ব নিজেরই।

সহযোগিতা নিজেকে নিজের করতে হবে। স্বভাব এমন এক প্রভাবক যা তোমায় গণ্ডীর মাঝে সীমাবদ্ধ ঘরে আটকে রাখে। সুতরাং জন্ম পরবর্তী সময়ে একটা করে পর্যায় তৈরি হয়। সেখানে জ্ঞানের বিস্তার না ঘটালে জীবন আর পুতুলের মাঝে তফাৎ থাকেনা । এরই সাথে আত্নার পোস্টমর্টেম করে সম্মিলিত প্রয়াসে ক্ষুদ্র থেকে বৃহৎ সকল সমস্যা কে সঠিক গুরুত্ব দিয়ে ভালোবাসার চাদরে আবৃত করে রাখতে হয়। এতে করে ভালো আরও সৌন্দর্যময় ও সুগঠিত হয়ে ওঠে। মনের ওপর চাপ কমে যায়। বাঁধা থাকলেও তা হয়ে ওঠে স্বাভাবিক।

একটা না বৃষ্টি হচ্ছিল। সরু রাস্তা পানিতে পূর্ণ। ছলাৎ ছলাৎ শব্দ ভেসে আসছে। রাত ক্রমশ গভীরতায় ঢেকে যাচ্ছিল। ঘুমও আসছিল। সেদিন আর কোনো কথা না বাড়িয়ে দুজনেই ঘুমিয়ে পড়লাম।

(চলবে)

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com