শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ১১:৪২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিতে ইউপি চেয়ারম্যান পদ হতে পদত্যাগ বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে কক্সবাজার-শাহপরীর দ্বীপ মহাসড়কে স্ট্রিট লাইট, সিসি ক্যামেরা ও ফুটওভার ব্রিজ স্থাপন জরুরী দিনাজপুরে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত বারুনী মেলায় জুয়া বসানোয় ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা বাঙালীর সংস্কৃতি চর্চা নতুন প্রজন্মদের কাছে বাড়াতে হবে -হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি পীরগঞ্জে হেরোইন গাঁজাসহ ৩ ব্যক্তি গ্রেফতার কাল ১৬ এপ্রিল রংপুরে আসছেন মাননীয় স্পীকার পীরগঞ্জে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বর্ষবরণ পলাশবাড়ীতে সাড়াশি অভিযানে মাদক ও জুয়া  অভিযোগে গ্রেফতার -৩ পলাশবাড়ীতে ১৯৯২ ব্যাচের বন্ধু ফোরামের ঈদ পুনর্মিলনী  

৪১ হাজার টন সার নিয়ে বিপাকে যমুনা কারখানা

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : রবিবার, ২৩ আগস্ট, ২০২০
  • ৫৫৯ বার পঠিত

রনবীর সিংহ।- প্রায় ৪১ হাজার টন ইউরিয়া সার নিয়ে বিপাকে পড়েছে জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ীর যমুনা সার কারখানা কর্তৃপক্ষ। এসব সারের মান খারাপ হওয়ার অভিযোগে শনিবার সকাল থেকে ডিলাররা তা নেওয়া বন্ধ করে দেওয়ায় এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। শরিষাবাড়ী উপজেলার তারাকান্দি এলাকায় অবস্থিত যমুনা সার কারখানার বিক্রয় বিভাগের কর্মকর্তা ওয়ারেছ আলী জানান, চলতি মাসে ডিলারদের মধ্যে সার বরাদ্দ দেওয়া হয় ৪৭ হাজার ৮৫১ টন। কারখানার কমান্ড এরিয়ায় প্রতি ডিলারের জন্য বরাদ্দ ১২ টন। এই সারের মধ্যে যমুনার উৎপাদিত ৯ টন ও আমদানি করা সার ৩ টন। কারখানায় মজুদ রয়েছে আমদানি করা ৪০ হাজার ৯০০ টন ও যমুনা সার কারখানার উৎপাদিত ৮২ হাজার ৬৮০ টন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে যমুনার ডিলাররা জানান, প্রতি মাসে ডিলারদের বরাদ্দ করা যমুনার উৎপাদিত ইউরিয়া সারের সঙ্গে আমদানি করা ৩ টন সার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এ সারের বস্তা দীর্ঘদিনের ছেঁড়া-ফাটা, জমাট বাঁধা, গলা ও পচা। এ সার কৃষকরা না নেওয়ায় মোটা অংকের লোকসান গুনে আসছেন ডিলাররা। এর ফলে আমদানি করা নিম্ন মানের সার ডিলারদের নামে বরাদ্দ বন্ধের দাবিতে কারখানার উৎপাদিত ইউরিয়া সারসহ সরবরাহ সম্পূণ রুপে বন্ধ করে দিয়েছেন ডিলাররা। কারখানার এমডি সুদীপ মজুমদার জানান, আমদানি করা সার ডিলাররা কেন নেবেন না, আমার জানা নেই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com