শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন

নদী থেকে অধ্যাপকের মরদেহ উদ্ধার : এসআই ওসমান গণিকে পুলিশ লাইনে স্থানান্তর

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ১২২ বার পঠিত

উত্তম সরকার, বগুড়া থেকে।- বগুড়ার শেরপুরে বাঙালী নদীতে ভাসমান নৌকায় জুয়া খেলার সময় পুলিশের ভয়ে নদীতে ঝাঁপ দিয়ে নিখোঁজ হওয়ার ২৪ ঘন্টা পর ৭ অক্টোবর বুধবার বিকাল ৫টার দিকে সহকারি অধ্যাপক আব্দুল হাই (৪৫) এর মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দল ও পুলিশ। এ ঘটনায় দায়িত্ব অবহেলার কারণে ওই রাতেই থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত এসআই ওসমান গণিকে জরুরি তলবে বগুড়া জেলা পুলিশ লাইনে স্থানান্তর করা হয়েছে। তবে তাকে ক্লোজড্ করা হয়েছে কিনা! এ বিষয়ে কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি থানা পুলিশের পক্ষ থেকে।
জানা যায়, উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের আওয়ালাকান্দি গ্রামে গত ৬ অক্টোবর মঙ্গলবার রাতে বাঙালী নদীতে ভাসমান নৌকায় বেশ কয়েকজন মিলে জুয়া খেলছিল। শেরপুর থানা পুলিশের এসআই ওসমান গণি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে জুয়া খেলার সময় আ’লীগ নেতা ও প্যানেল মেয়রসহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেন। পুলিশের হাত থেকে বাঁচতে সিরাজগঞ্জ জেলার কাজিপুর উপজেলার হরিনাথপুর আমিনা মুনসুর ডিগ্রি কলেজের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আব্দুল হাই নৌকা থেকে নদীতে ঝাঁপ দেয়। তাকে খোজাখুজি না করে আটককৃত ৪ জনকে থানায় নিয়ে আসে এসআই ওসমান। পরদিন ৭ অক্টোবর বুধবার নিখোজ হওয়া অধ্যাপকের লাশ নদী থেকে উদ্ধার করেন ফায়ার সার্ভিস এ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা ও থানা পুলিশ। এ নিয়ে এলাকায় ব্যাপক সমালোচনা সৃষ্টি হয়। পরে ওই রাতেই এসআই ওসমান গণিকে দায়িত্ব অবহেলার কারণে শেরপুর থানা থেকে বগুড়া পুলিশ লাইনে স্থানান্তর করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল কালাম আজাদ বলেন, বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা (বিপিএম) স্যারের নির্দেশে এসআই ওসমান গণিকে শেরপুর থানা থেকে পুলিশ লাইনে পাঠানো হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com