বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
কোটা বিরোধী আন্দোলনে নিহত শিক্ষার্থী সাঈদের বাড়ীতে শোকের মাতম নেটওয়ার্কের সক্ষমতা বাড়াতে এআই যুক্ত করার ঘোষণা হুয়াওয়ের রংপুরে কোটা বিরোধী আন্দোলন এক শিক্ষার্থী নিহত তৃণমূল পর্যায়ে চিকিৎসার মান উন্নত করলে বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক রোগী শুন্য হবে-স্বাস্থ্যমন্ত্রী   পার্বতীপুর প্রেসক্লাবের উদ্যোগে নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইসচেয়ারম্যানদের সংবর্ধনা বন্যার পানিতে সাঁতরে বন্যার্তদের ত্রাণ সংগ্রহ পার্বতীপুর পৌরসভায় মৌসুমি ফল উৎসব বড় পুকুরিয়া কয়লা খনির কারণে ক্ষতিগ্রস্তদের মানববন্ধন পার্বতীপুর পৌরসভায়  ড্রেন নির্মান কাজের উদ্বোধন দিনাজপুর-বিরামপুর -ঘোড়াঘাট সড়কে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটছে

নবাবগঞ্জে গৃহবধূকে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে মামলা দায়ের

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১১ জুলাই, ২০২১
  • ৪০৯ বার পঠিত

নবাবগঞ্জ (দিনাজপুর) থেকে সৈয়দ হারুনুর রশীদ।- নবাবগঞ্জে খাদিজা আক্তার রনি(২৩) নামে এক গৃহবধূকে আত্মহত্যার প্ররোচনা দানের অভিযোগে গৃহবধূর স্বামী সোহেল রানা ও শাশুড়ী শিরিনা আক্তারের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের হয়েছে।গৃহবধূর পিতা জেলার হাকিমপুর উপজেলার বাওনা গ্রামের মো. মকবুল হোসেন বাদী হয়ে গত শনিবার দিনগত রাতে নবাবগঞ্জ থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলা সূত্রে জানা যায় মামলার বাদীর মেয়ে খাদিজা আক্তার রনির সাথে নবাবগঞ্জ উপজেলার ভাদুরিয়া ইউনিয়নের সিংড়া শতপুর (দক্ষিনপাড়া) গ্রামের মো. আফজাল হোসেনের ছেলে মো. সোহেল রানার (২৯) ৭/৮মাস পূর্বে বিয়ে হয় এবং তার মেয়ে ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিল। বিয়ের পর জামাই সোহেল রানা যৌতুকের দাবী করলে তিনি তাকে একটি মটর সাইকেল কিনে দেন। এরপরে আরও ১ লাখ টাকা যৌতুকের চাঁপ দিলে তার মেয়ে প্রায় এক সপ্তাহ পূর্বে তার বাবার বাড়ীতে যায় এবং ১ লাখ টাকা দেয়ার কথা বলে।তিনি টাকা দিতে পারবেন না বলে মেয়েকে জানালে মেয়ে গত শুক্রবার বিকালে স্বামীর বাড়ীতে আসে। বিয়ের পর থেকে জামাই তার মেয়েকে বিভিন্ন ভাবে শারিরীক ও মানষিক নির্যাতন করে আসছিল। এমতাবস্থায় গত শনিবার বিকালে তার জামাই ফোন করে জানায় যে তার মেয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে তিনি সহ অন্যরা এসে জানতে পারেন যে তার জামাই মেয়েকে বকাঝকা করে বাহিরে দোকোনে যায়। তার মেয়ে স্বামী ও শাশুড়ীর প্রত্যক্ষ প্ররোচনায় চরম ভাবে অতিষ্ট হয়ে নিজ ঘরের ফ্যানের সাথে ওড়না লাগিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। ঘটনার পর স্থানীয় ইউ,পি সদস্য আতাউর রহমান তার জামাইকে আটক করে পুলিশে সংবাদ দেন। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মেয়ের লাশ উদ্ধার সহ জামাইকে আটক করে। মামলায় তিনি উল্লেখ করেন তার জামাইয়ের ১ম স্ত্রী প্রায় ১ বছর পূর্বে আত্মহত্যা করে। মামলার তদন্তকারী অফিসার এস আই আকতারুল করিম জানান লাশ ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং আটক গৃহবধূর স্বামী সোহেল রানাকে মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আজ রবিবার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com