বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:৪৬ অপরাহ্ন

ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি গত চার বছরে প্রায় ৯ কোটি টাকার মাদক সহ বিভিন্ন পন্য আটক করেছে

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : শনিবার, ৮ মে, ২০২১
  • ৮১ বার পঠিত

মোঃ আশরাফুল আলম, দিনাজপুর (ফুলবাড়ী) প্রতিনিধি।- দিনাাজপুরের ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি সীমান্ত এলাকায় গত ৪ বছরে চোরাচালান অভিযান চালিয়ে প্রায় ৯ কোটি টাকার মাদক সহ বিভিন্ন পন্য আটক করেন। ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি ও দিনাজপুর ৪২ বিজিবি চোরাচালান অভিযান চালিয়ে ফুলবাড়ী সীমান্ত এলাকায় গত ১লা জানুয়ারী ২০১৮ থেকে ৩১ অক্টোম্বর ২০১৯ ইং তারিখ পর্যন্ত ৪ কোটি ৫৪ লক্ষ টাকার মালামাল আটক করেন এবং দিনাজপুর ৪২ বিজিবি গত ২২ আগষ্ট ২০১৮ হতে ২০ নভেম্বর ২০১৯ ইং তারিখ পর্যন্ত দিনাজপুর সীমান্ত এলাকায় চোরাচালন অভিযান চালিয়ে ৩৮ লক্ষ ৯ হাজার টাকার মালামাল আটক করেন এবং ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি ৪ কোটি ৯২ লক্ষ ২ হাজার টাকা মূল্যের মাদক দ্রব্য আটক করতে সক্ষম হন। যাহা গত ২ ডিসেম্বর ২০১৯ ইং তারিখে ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবির সদর দপ্তরে ধ্বংশ করা হয়। এর মধ্যে ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি আটককৃত মাদক দ্রব্যের মধ্যে ফেন্সিডিল ৪০,৩০৭ বোতল, ফেন্সিডিল লুজ ১৭ লিটার, বিদেশী মদ ১৯০ বোতল এবং ১১৬ প্যাক, দেশী মদ ৪২ লিটার নেশা জাতীয় ইনজেকশন ১০,১৩১ টি, যৌন উত্তেজক সিরাপ ১,৫৮,৯৮০টি, যৌন উত্তেজক সিরাপ ২৯,৩০৯ বোতল, গাজা ২১৩৫ কেজি, ভাং- ১৯,০০০ কেজি, ইয়াবা-৯২৫টি ও মদ তৈরি বড়ি। দিনাজপুর ৪২ বিজিবি আটককৃত মালামাল ছিল ফেন্সিডিল ৯০৫৩ বোতল, বিদেশী মদ ১০০ বোতল ও ৬০ প্যাকেট গাঁজা ৩৫ কেজি, নেশা জাতীয় ইনজেকশন ১৩৪ পিচ। ১লা জানুয়ারী থেকে ৩১শে জুলাই ২০১৯ পর্যন্ত ৬ কোটি ৪৫ লক্ষ ৬০ হাজার ৫৭ টাকা মূল্যের মাদক সহ অন্যান্য মালামাল আটক করেন এবং ৪৬ জন চোরাকারবারীকে আটক করেন। তার মধ্যে পলাতক রয়েছে ৯ জন। ৫৫ জন আসামীর বিরুদ্ধে ৪২ টি মামলা করেছেন ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি। জানুয়ারী হতে ডিম্বের ২০১৮ পর্যন্ত ৪ কোটি ৩৮ লক্ষ ৭৬ হাজার ৯১৬ টাকা মূল্যের মাদক দ্রব্য সহ বিভিন্ন মালামাল আটক করেন। এর মধ্যে আটক করেছেন ৪৩ জন। পলাতক ছিল ২ জন, ৭৫ জন আসামীর বিরুদ্ধে ৩৯টি মাদক চোরাচালানের মামলা দায়ের করেন। ১ জুন ২০২০ হতে নভেম্বর ২০২০ পর্যন্ত ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবি সীমান্ত এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৭৭ জন চোরাকারবারী আটক সহ ১ কোটি ৬৬ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা মূল্যের মাদক সহ পন্য আটক করেন। ফেন্সিডিল ৩১,২৪৭ বোতল, এমকেডিল ৩৭২ বোতল, বিদেশী মদ ৬২ বোতল, দেশী মদ ৪০৫ লিটার, নেশা জাতীয় ইনজেকশন ৭৩৮০ পিচ, নেশা জাতীয় ট্যাবলেট ২২৭০০ পিচ, যৌন উত্তেজক সিরাপ ৯৪৯৪ বোতল, গাঁজা ৮১৭ কেজি, ইয়াবা ১৯৯৬ পিচ সর্ব মোট আনুমানিক মূল্য ১ কোটি ৬৬ লক্ষ ২৯ হাজার টাকা। ২০২০ ইং সালের ডিসেম্বরে ফুলবাড়ী উপজেলার জলপাইতলী বিওপির নায়েক সুবেদার মোঃ সফি উদ্দীন সীমান্ত থেকে ২০৭৫ বোতল ফেন্সিডিল আটক করেন যাহার অনুমানিক মূল্য ১০ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা। ১৪ জানুয়ারী রুদ্রানী বিওপির হাবিলদার লিয়াকত শেখ সীমান্তে টহল অবস্থায় ৯২ হাজার টাকার মাদক সহ দুইজনকে আটক করেন। জানুয়ারী ও ফেব্রুয়ারী মাসে ৯৯লক্ষ ৫০ হাজার টাকার ভারতীও মাদক সহ পন্য আটক করেন। এ ছাড়া ২৭ জন চোরাকাবারীকে আটক করেন। ২১৮ জনের বিরুদ্ধে মাদক চোরাকারবারীর মামলা করেন। ১৪ মার্চ ২০২১ রুদ্রানী বিওপির নায়েক সুবেদার মোঃ আমির আহম্মেদ কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী মোঃ সোহেল রানা (৩০) কে গোয়েন্দা রির্পোটের ভিত্তিতে মাদক সহ আটক করেন।পার্বতীপুর উপজেলার বড় গ্রামে অভিযান চালিয়ে ৭ লক্ষ টাকার কষ্টি পাথরের মূর্তি উদ্ধার করেন। ফুলবাড়ী ২৯ বিজিবির অধিনায়ক লে: কর্ণেল শরীফ উল্লাহ আবেদ (এসজিপি) ফুলবাড়ী ২৯ ব্যাটেলিয়নের দায়িত্ব ভার গ্রহণের পর দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম ও কঠোর হস্তে সীমান্তে চোরাচালান প্রতিরোধে আগ্রহী ভূমিকা রেখে আসছেন ও নিয়মিত ভাবে চোরাচালন, মাদক, সীমান্তে অবৈধ্য অনুপ্রবেশ, নারী ও শিশু এবং মানব পাচার প্রতিরোধে জনসচেতনতা মূলক সভার আয়োজন করে এলাকার জন সাধারণকে প্রেরনা প্রদান অব্যহত রেখেছেন এবং সততা নিষ্টার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com