1. admin@bwazarakatha.com : bwazarakatha com : bwazarakatha com
রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১০:৫২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
পীরগঞ্জে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত বাণিজ্যমন্ত্রীর সাথে রংপুরে বঙ্গবন্ধু সংসদ ও পাঠাগার ছাত্র ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দের সাক্ষাৎ দিনাজপুর পুলিশ লাইনস প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নবনির্মিত শহীদ মিনারের উদ্বোধন দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের আয়োজনে শহীদদের স্মরণে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল ঘোড়াঘাটে যুবলীগের শহীদদের স্মরণে পুষ্পাঞ্জলি  অর্পণ বাংলা বর্ণে এসএমএস পাঠালে খরচ ২৫ পয়সা কোন ষড়যন্ত্রই শেখ হাসিনার কাছে পাত্তা পাবে না -মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি সাপাহারে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত ফুলবাড়ীতে আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত  গভীর শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় রংপুরে ভাষা শহীদদের স্বরণ

মুক্তিযোদ্ধের সেক্টর কমান্ডার বীর উত্তম সি আর দত্তের পরলোক গমন

  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৬ আগস্ট, ২০২০
  • ৩১ বার পঠিত

বজ্রকথা প্রতিবেদক |- মুক্তিযুদ্ধ কালীন সেক্টর কমান্ডার অবসর প্রাপ্ত মেজর জেনারেল চিত্ত রঞ্জন দত্তের (সি আর দত্ত) মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ মঙ্গলবার পৃথক শোকবার্তায় এ শোক প্রকাশ করেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী। রাষ্ট্রপতি শোকবার্তায় সি আর দত্তের বিদেহী আত্মার শান্তিক কামনা করেছেন এবং তার শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন। শোকবার্তায় রাষ্ট্রপতি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে মেজর জেনারেল (অব.) সি আর দত্তের ভূমিকা জাতি চিরদিন শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সি আর দত্তের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে তার অনন্য অবদান দেশ ও জাতি চিরদিন কৃতজ্ঞ চিত্তে সঙ্গে স্মরণ করবে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে (বাংলাদেশ সময়) যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান সি আর দত্ত। তার বয়স হয়েছিল ৯৩ বছর। চিত্ত রঞ্জন দত্তের জন্ম ১৯২৭ সালের ১ জানুয়ারি আসামের শিলংয়ে। তার পৈতৃক বাড়ি হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার মিরাশি গ্রামে। শিলং-এর লাবান গভর্নমেন্ট হাইস্কুল -এ দ্বিতীয় শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেছিলেন তিনি। পরবর্তীকালে তার বাবা চাকরি থেকে অবসর নিয়ে হবিগঞ্জে স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন। সি আর দত্ত ১৯৪৭ সালে পাকিস্তান আর্মিতে অফিসার পদে যোগ দেন। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে ৪ নম্বর সেক্টরে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ১৯৭৪ সালে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মেজর জেনারেল পদ থেকে অবসরে যান। মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ অবদানের জন্য চিত্ত রঞ্জন দত্ত বীর উত্তম খেতাবে ভূষিত হন। রাজধানী ঢাকার কাঁটাবন থেকে কারওয়ান বাজার সিগন্যাল পর্যন্ত সড়কটি বীর উত্তম সি আর দত্ত সড়ক নামে নামকরণ করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ

© All rights reserved © 2020 Bwazarakatha.Com
Design & Development By Hostitbd.Com