সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:২৩ পূর্বাহ্ন

সিরাজদিখানে গৃহবধূ’ হামলার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার তদন্ত রিপোর্ট প্রত্যাখ্যান

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২৪ আগস্ট, ২০২০
  • ২৪৪ বার পঠিত
মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি।- সিরাজদিখানের বহুল আলোচিত গৃহবধূকে হামলা, লুটপাটের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় তদন্ত রিপোর্ট প্রভাবদুস্ট বলে অভিহিত করলেন মামলার বাদী মিরাজ।
গত ২০১৯ সালের ১৫ জুলাই সিরাজদিখান থানার পাথরঘাটা চরে সাংবাদিক সোহরাওয়ার্দীর বসত বাড়ির আঙ্গীনায় মাদক ব্যবসায়ী ও স্থানীয় সন্ত্রাসীরা জাহাঙ্গীরের নেতৃত্বে মাদক সেবন করতে গেলে মিরাজের স্ত্রী বিউটি বেগম বাধা দিলে তার ওপর হামলার ঘটনা ঘটে।এ সময় লোহার রড ও দেশীয় অস্ত্র দ্বারা আঘাত করে তার হাত ভেঙ্গে গুরুতর জখম করে মাদক ব্যাবসায়ী সন্ত্রাসীরা।তারা লুট পাট করে ঘর থেকে নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়।
বাদীপক্ষের অভিযোগে তারা এ ঘটনায় মুন্সীগঞ্জের বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে যে পিটিশন দাখিল করেছেন তাতে পুলিশ নিরপেক্ষ ভাবে তদন্ত করলে পেনাল কোড আইনের ১৪৩৷৪৪৭৷৪৪৮৷৩২৬৷৩০৭৷৩৫৪৷১১৪৷৩৭৯৷৩৮০৷৩৪ ধারার পক্ষে তদন্ত রিপোর্ট আসে।বিজ্ঞ আদালত এ মামলাটি আমলে নিয়ে সিরাজদিখান থানা পুলিশকে তদন্ত করতে নির্দেশ দেয়।সিরাজদিখান থানার এস আই হাফিজুর রহমান মামলাটির তদন্ত করেন।পুলিশ প্রভাবিত হয়েছে বলেই এ মামলায় আসামীদের রক্ষা করতেই ৩২৩৷৩২৫৷৫০৬ ধারায় আদালতে ভূয়া মনগড়া রিপোর্ট দাখিল করেছে।এই মামলার তদন্তে যথেষ্ট দক্ষতা, নিষ্ঠা, সততা ও কর্মোদ্দীপনা পরিলক্ষিত হয়নি,বলে দাবী করেছে বাদী পক্ষ ।পুলিশ অফিসারের বিরুদ্ধে প্রভাবমুক্তভাবে তদন্ত রিপোর্ট দাখিল না করার অভিযোগ করার ও অভিযোগ উঠেছে।এই মামলায়আসামিদের সঙ্গে পুলিশের যোগসাজশে কিংবা রাজনৈতিক-সামাজিক প্রভাব খাটিয়ে অথবা অনৈতিক আর্থিক লেনদেনের মাধ্যমে অভিযুক্ত পক্ষ অভিযোগ থেকে রেহাই পেতে পুলিশকে প্রভাবিত করে তদন্তে মূল অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়নি মর্মে তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে পেশ করেছে।মামলায় পুলিশ আসামিদের পক্ষ নেয়ায় আইনের প্রতি আস্থা হারাচ্ছে মানুষ।
এ মামলার বাদী মিরাজ সাংবাদিকদের জানান এ বিষয়ে কোর্টে নারাজি দিয়েছি তদন্তকারী পুলিশের এস আই এর বিরুদ্ধে আইজিপির অভিযোগ সেলে আবেদন করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com