বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৭:৫৪ পূর্বাহ্ন

রংপুর নগরীতে খালের পানিতে ডুবে মা-ছেলের মৃত্যু

রিপোটারের নাম
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৪৪ বার পঠিত

রংপুর প্রতিবেদক।- রংপুর নগরীতে স্মরণকালের ভয়াবহ বৃষ্টির পানিতে ভরাট হওয়া কেডি খালে ডুবে গিয়ে মা-ছেলের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন- শালবন মিস্ত্রিপাড়ার জমির উদ্দিনের স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৫২) ও ছেলে রিপন ইসলাম (৮)।
বৃহস্পতিবার (১ লা অক্টোবর) দুপুরে নগরীর নিউ জুম্মাপাড়ার তসলিমের খামার সংলগ্ন দোলাপাড়ায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেট্রোপলিটন কোতয়ালী থানার ওসি আব্দুর রশিদ।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১’শ বছরের রেকর্ড পরিমাণ বৃষ্টির পানিতে সৃষ্ট জলাবদ্ধতায় নগরীর মিস্ত্রিপাড়া থেকে জুম্মাপাড়া যাওয়ার প্রায় চার কিলোমিটারের রাস্তাটি এখনো হাঁটু পানিতে নিমজ্জিত রয়েছে। এর মাঝে প্রায় দুই কিলোমিটার রাস্তার দুই পার্শ্বে নিচু এলাকা হওয়ায় অথৈ পানি বিদ্যমান। বিকল্প রাস্তা দিয়ে চলাচল করতে বেশি সময় লাগার কারণে স্থানীয়রা মাত্র চার ফিট প্রশস্ত এই সরু রাস্তা দিয়েই ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে। যার পাশের কেডি খালের এখনও ৭/৮ ফুট পানি রয়েছে।
স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর বারোটার দিকে নিউ জুম্মাপাড়া করিমিয়া মাদরাসা পড়ুয়া ছেলে শফিকুল ইসলামকে নিতে তার মা রোকেয়া বেগম ও ছোট ছেলে রিপন ইসলাম মাদরাসা যায়। সেখানে থেকে মা ও দুই ছেলে বাসায় ফেরার পথে আল-হেরা স্কুলের কাছে পা পিঁছলে বড় ছেলে কেডি খালে পরে ডুবে যায়। তাকে বাঁচাতে তার ছোট ভাই রিপন পানিতে ঝাঁপিয়ে পড়লে সেও ডুবে যায়। এ সময় মা রোকেয়া বেগম তার দুই ছেলেকে উদ্ধার করার জন্য খালের পানিতে ঝাঁপ দেয়। বড় ছেলে শফিকুল কোন রকমে উঠতে সক্ষম হলেও মা রোকেয়া ও ছোট ছেলে রিপন পানিতে তলিয়ে যায়।
পরে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল ও স্থানীয়রা মা-ছেলেকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানেকর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের দু-জনকেই মৃত বলে ঘোষনা করে। তবে বড় ছেলে শফিকুল ইসলামকে গুরত্বর অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © 2020-2022 বজ্রকথা।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Hostitbd.Com